• শুক্রবার , ১৯ জুলাই ২০১৯

বাঁচা-মরার লড়াইয়ের ম্যাচে শ্রীলংকার সংগ্রহ ২০৩

জিতলে সেমিফাইনালের স্বপ্ন টিকে থাকবে। হারলে বিদায়। এমন কঠিন সমীকরণের ম্যাচে চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়তে পারেনি শ্রীলংকা। দক্ষিণ আফ্রিকান পেসার ডোয়েন পিটোরিয়াস এবং ক্রিস মরিসের গতির মুখে পড়ে ৪৯.৩ ওভারে ২০৩ রানে অলআউট লংকানরা।

শুক্রবার ইংল্যান্ডের চেস্টার লে স্ট্রিটের রিভারসাইড গ্রাউন্ডে দক্ষিণ আফ্রিকার টস হেরে প্রথমে ব্যাটিংয়ে নেমেই বিপদে পড়ে যায় শ্রীলংকা। ডোয়েন পিটোরিয়াস-ক্রিস মরিসে ও কাগিসো রাবাদার গতির মুখে পড়ে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়ে ১৯৯৬ সালের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন শ্রীলংকা।

বাঁচা-মরার লড়াইয়ের ম্যাচে প্রত্যাশিত ব্যাটিং করতে পারেননি দিমুথ করুনারত্নে, অভিষেক ফার্নান্দো, কুশল পেরেরা ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। দলীয় ২১.৫ ওভারে ১০০ রানে প্রথম সারির ৪ ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর শেষ দিকে কুশল মেন্ডিস, ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা, ও থিসেরা পেরেরা দায়িত্বশীল ব্যাটিং করতে পারেননি।

তবে জীবন মেন্ডিস ও ইসুর উদানের ছোট এবং কার্যকরী ইনিংসে শেষ পর্যন্ত ৪৯.৩ ওভারে ২০৩ রান তুলতে সক্ষম হয় শ্রীলংকা। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে তিনটি করে উইকেট শিকার করেন পিটোরিয়াস ও ক্রিস মরিস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

শ্রীলংকা: ৪৯.৩ ওভারে ২০৩/১০ (কুশল পেরেরা ৩০, ফার্নান্দো ৩০, ডি সিলভা ২৪, কুশল মেন্ডিস ২৩, থিসেরা পেরেরা ২১, ইসুর উদান ১৭, জীবন মেন্ডিস ১৮; পিটোরিয়াস ৩/২৫, মরিস ৩/৪৬, রাবাদা ২/৩৬)।

Related Posts

Leave A Comment