• বৃহস্পতিবার , ১৭ অক্টোবর ২০১৯

বাংলাদেশ কী স্বরূপে ফিরতে পারবে?

পাঁচ বছর পর আন্তর্জাতিক টি ২০ উপভোগ করবেন চট্টগ্রামের দর্শকরা। ত্রিদেশীয় টি ২০ সিরিজের প্রথম তিনটি ম্যাচ হয়েছে ঢাকায়। আজ জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সিরিজের চট্টগ্রাম পর্বের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের সামনে জিম্বাবুয়ে।

রুগ্ন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আজ জিতলেই যে রাতারাতি সব ঠিক হয়ে যাবে তা নয়, তবে দম ফেলার সুযোগ মিলবে। সাকিবরা জিতলে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যাবে আজই। তখন লিগপর্বের শেষ ম্যাচে নকআউটের চাপ নিতে হবে না স্বাগতিকদের। টানা দুই জয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে আপাতত আফগানিস্তান। টানা দুই হারে তলানিতে জিম্বাবুয়ে। এক জয় ও এক হারে বাংলাদেশ আছে দ্বিতীয় স্থানে।

ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে জিতেছিল বাংলাদেশ, হেরেছে দ্বিতীয়টিতে। তবে একটি জায়গায় দুই ম্যাচের চিত্র ছিল অভিন্ন। পুরোপুরি ব্যর্থ টপঅর্ডার। প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২৯ রানে চার উইকেট হারিয়েছিল বাংলাদেশ।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে পরের ম্যাচে তারা চার উইকেট হারায় ৩২ রানে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তরুণ আফিফ হোসেনের ২৬ বলে ৫২ রানের অসাধারণ ইনিংস জিতিয়েছিল দলকে। আফগানদের বিপক্ষে পাওয়া যায়নি তেমন কোনো ত্রাতা।

টানা ব্যর্থতার বলয়ে থেকে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের আত্মবিশ্বাস নড়ে গেছে। নিজেদের ব্যাটিং নিয়ে মানসিকভাবেও যেন তারা বিভ্রান্ত। আত্মবিশ্বাস ও মানসিকতার পাশাপাশি সামর্থ্যওে ঘাটতি দেখছেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। সবচেয়ে বড় সমস্যাটা হল দল হিসেবে খেলতে পারছে না বাংলাদেশ।

সবার আগে এই জায়গাটায় উন্নতি চান সাকিব, ‘প্রতি ম্যাচেই একজন, দু’জন হয়তো পারফর্ম করছে। কিন্তু বেশির ভাগ ক্রিকেটারই ব্যর্থ হচ্ছে। সাধারণত যা হয় যে, অধিকাংশ ক্রিকেটার পারফর্ম করে, দু’একজন ব্যর্থ হয়, তাই তেমন সমস্যা হয় না। দিন শেষে এটি দলীয় খেলা। দল হিসেবে খেলতে না পারলে আমাদের জন্য জেতাটা খুবই কষ্টকর।’

পারফরম্যান্সের মতো দল ও একাদশ নির্বাচনেও দেখা যাচ্ছে অস্থিরতা। ব্যাটিং অর্ডারে আনা হচ্ছে উল্টোপাল্টা পরিবর্তন। আগের ম্যাচে লিটন দাসের সঙ্গে মুশফিকুর রহিমকে ওপেনিংয়ে নামানোর ব্যাখ্যাতীত সিদ্ধান্ত কোনো কাজে আসেনি। আফগানদের বিপক্ষে হারের পর চট্টগ্রাম পর্বের দুই ম্যাচের জন্য দলে আবার পরিবর্তনের ছড়াছড়ি। মূল খেলোয়াড়দের মধ্যে বাদ পড়েছেন সৌম্য সরকার। দলে তিন নতুন মুখ মোহাম্মদ নাঈম, আমিনুল ইসলাম ও নাজমুল হোসেন শান্ত। দলে ফিরেছেন দুই অভিজ্ঞ পেসার রুবেল হোসেন ও শফিউল ইসলাম।

সৌম্য বাদ পড়ায় লিটনের উদ্বোধনী সঙ্গী হিসেবে আজ অভিষেক হতে পারে নাঈমের। তবে যারাই খেলুন না কেন, দুঃসময়ের ঘেরাটোপ থেকে মুক্তি পেতে সত্যিকারের দল হয়ে উঠতে হবে বাংলাদেশকে।

কিন্তু সিরিজে টিকে থাকতে চাপে থাকা বাংলাদেশকে আরও চেপে ধরতে চায় জিম্বাবুয়ে। কাল সংবাদ সম্মেলনে সেটাই জানালেন দলটির অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার শন উইলিয়ামস, ‘বাংলাদেশ চাপে আছে, আমরা সেটা জানি। কিন্তু তার ফায়দা নিতে সবার আগে নিজেদের মৌলিক কাজগুলো ঠিকঠাকমতো করতে হবে। খেলায় পার্থক্য গড়ে দেয় ছোট ছোট বিষয়গুলো। সেগুলো ঠিকঠাক হলে কোনো কিছুই অসম্ভব নয়।’

Related Posts

Leave A Comment