অজিরা ওয়ানডে জিতল সাত ম্যাচ পর

australia

একের পর এক বিতর্কে টালমাটাল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। বল বিকৃতি ইস্যু ধরে অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ ও সহ-অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নারের উপর এক বছরের  নিষেধাজ্ঞা, কোচ ড্যারেন লেহম্যানের পদত্যাগ ও প্রধান নির্বাচকের পদত্যাগ। একের পর এক সিরিজ হারে দিশেহারা বর্তমান বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। অবশেষে টানা হারের বৃত্ত থেকে বের হয়ে স্বস্তির জয় পেল অজিরা।তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৭ রানে হারিয়ে সিরিজে সমতায় এনেছে স্বাগতিকরা।আজ শুক্রবার অ্যাডিলেডে টস জিতে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস।

দলীয় ১২ রানেই অজি ওপেনার ট্রাভিস হেডকে আউট করে ভালো কিছুর ইঙ্গিত দেয় প্রোটিয়া পেসার লুঙ্গি এনগিদি।এরপর ৫৪ রানের জুটি গড়ে প্রাথমিক বিপর্যয় সামাল দেন অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ ও দীর্ঘদিন পর দলে ফেরা শন মার্শ। ব্যক্তিগত ২২ রানে মার্শ ফিরে গেলে ক্রিস লিনকে সঙ্গে নিয়ে দলীয় রান এগিয়ে নেন ফিঞ্চ।৪টি চারের সাহায্যে ৬৩ বলে ৪১ রান করে ফিঞ্চ ফিরে যাওয়ার পর বেশিক্ষণ ক্রিজে থাকতে পারেননি ক্রিস লিনও।তিন চার ও দুই ছয়ে ৪৪ বলে ৪৪ রান করে লিন কাগিসো রাবাদার বলে আউট হয়ে গেলে আবারও বিপদে পড়ে অজি শিবির।

এরপর এক প্রান্ত আগলে রাখেন উইকেটরক্ষক এলেক্স ক্যারি।কিন্তু গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, মার্কস স্টোয়েনস, প্যাট কামিন্স কেউই ক্যারিকে যোগ্য সঙ্গ দিতে না পারায় ২৩১ রানে অলআউট হতে হয় স্বাগতিকদের। আফ্রিকার হয়ে রাবাদা নেন ৪ উইকেট।২৩২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ১৮ রানেই ওপেনার ডি ককের উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। এরপর এইডেন মারক্রাম ও রিজা হেনড্রিকস দ্রুত ফিরে গেলে দলীয় পঞ্চাশ রানের আগেই তিন উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় অটিস গিবসনের শিষ্যরা।অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিসের ৪৭ ও ডেভিড মিলার ৫১ রানে করলেও জয়ের বন্দরে যেতে পারেনি প্রোটিয়া শিবির।শেষদিকে এনগিদি ও ইমরান তাহির কিছুটা প্রতিরোধ করলেও ২২৪ রানে অলআউট হয়ে ৭ রানের হার নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় দক্ষিণ আফ্রিকাকে। অজিদের হয়ে মার্ক স্টোয়েনস নেন ৩ উইকেট। ম্যাচ সেরা হন অজি অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ।হোবার্টে সিরিজ নির্ধারণী শেষ ম্যাচটি শুরু হবে ১১ নভেম্বর বাংলাদেশ সময় সকাল ৮টা ৫০মিনিটে।

 

 

source-rtv

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *