আইপিএলের নতুন টাইটেল স্পন্সর DREAM 11

ভারত-চীনের লাদাখ সীমান্ত বিরোধের ফলে আইপিএল থেকে চীনের মোবাইল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ভিভো স্পন্সরশিপ সরিয়ে নেয় । তার পর থেকেই ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) নতুন স্পন্সরশিপের চেষ্টা চালায় । 

পতঞ্জলি, টাটা, বাইজু অনেক প্রতিষ্ঠানের নামই শোনা গিয়েছিল । সর্বশেষে আইপিএলের ১৩ তম আসরের জন্য স্পন্সর হওয়ার দৌড়ে লড়াইয়ে ছিল ইউনাকোডেমি, বাইজু এবং ড্রিম-ইলেভেন । এবারের আসরে স্পন্সর হিসেবে থাকবে ভারতের ফ্যান্টাসি স্পোর্টস প্লাটফর্ম ‘ড্রিম ইলেভেন’ । বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ব্রিজেশ প্যাটেল ।

আইপিএলের স্পন্সরশিপ জিততে ভারতীয় প্রতিষ্ঠান বাইজু ২০১ কোটি রুপি, ইডনাকাডেমি ১৭১ কোটি ২২২ কোটি রুপি (প্রায় ২৫১ কোটি ২২ লাখ টাকা ) দিয়ে এবারের স্পন্সরশিপ কিনে নিয়েছে ড্রিম ১১ । ২০২০ সালের ১৮ আগষ্ট থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত আইপিএল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে তাদের । বিসিসিআই ও আইপিএল ক্যাঞ্চাইজি মালিকের মধ্যে থাকা চুক্তি অনুযায়ী দলগুলো কেন্দ্রীয় চুক্তি থেকে পাওয়া অর্থের ৫০ শতাংশ অর্খ পাবে ফ্যাঞ্চাইজি গুলো । 

ভিভো সরে যাওয়ার পর নতুন স্পন্সর খুজতে গিয়ে ২০০ কোটি রুপির অনেক বেশি ক্ষতির সম্মুখীন হলো বিসিসিআই । ভিভোর কাছ থেকে বছরে পেত ৪৪০ কোটি রুপি এবছর সেখানে ড্রিম-১১ এর কাছ থেকে পাবে ২২২ কোটি রুপি । প্রায় ২১৮ কোটি রুপি কম পাচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড ।

Leave a comment

Your email address will not be published.