আর্জেন্টিনার পর এবার ছিটকে গেল পর্তুগাল।

বিশ্বকাপে ইন্দ্রপতন। একই দিনে আর্জেন্টিনার পর এবার ছিটকে গেল পর্তুগাল। উরুগুয়ের কাছে প্রিকোয়ার্টার ফাইনালে হার পর্তুগালের। সোচিতে একাই জোড়া গোল করে উরুগুয়েকে ম্যাচ জেতালেন কাভানি। ম্যাচে বেশ কয়েকবার গোলের দরজা খোলার চেষ্টা করলেও লক্ষ্যপূরণে ব্যর্থ রোনালদো। পর্তুগালের হয়ে দ্বিতীয়ার্ধে গোলটি পেপের। ০-১ পিছিয়ে থেকে ৫৫ মিনিটে পেপের হেডেই ম্যাচে ফেরে ইউরো চ্যাম্পিয়নরা। শেষরক্ষা অবশ্য করতে পারেনি পর্তুগাল। উরুগুয়ে ম্যাচ জিতল ২-১ গোলে।

দিনের প্রথম ম্যাচে ফ্রান্সের বিরুদ্ধে যেমন মেসি ম্যাজিকের দেখা মেলেনি ঠিক তেমননি উরুগুয়ের বিরুদ্ধে রোনালদো উত্তাপের ঝলক দেখাতে ব্যর্থ সি আর সেভেন। গ্রুপ পর্বে এই রনকেই বিধ্বংসী দেখিয়েছিল। প্রত্যাশার পারদও চড়ছিল তাকে নিয়ে। রোনালদোকে এদিন বোতল বন্দী করে রাখল উরুগুয়ের ডিফেন্স৷ ফ্রি-কিকে সুযোগ পেলেও তা মানবপ্রাচীরে মেরে বসেন পর্তুগিজ ফুটবলের বর্তমান সুপারস্টার।

উল্টে রোনালদোর মঞ্চে আলো কাড়লেন কাভানি। সঙ্গী সুয়ারেজও তার সেরাটা দিয়েছেন। ম্যাচের সাত মিনিটে উরুগুয়ের এগিয়ে যাওয়াটা সুয়ারেজ-কাভানি জুটিরই ফসল। বিশ্বফুটবলে ব্যাড বয় নামে পরিচিত সুয়ারেজের ক্রস ও সেই মাপা ক্রসে কাভানির হেড! এই যুগলবন্দি ফুটবল অনুরাগীদের হৃদয়ে দীর্ঘদিনের জন্য জায়গা করে নিল বলা চলে। গোলটি অবশ্যই রাশিয়ার অন্যতম সেরা গোলের লিস্টে জায়গা পেতে চলেছে।

আর কী কী পাওয়া গেল এই ম্যাচে। অবশ্যই কাভানির দ্বিতীয় গোল৷ চমৎকার ফিনিশ করেন ৬২ মিনিটে। সতীর্থ বেনতানকুরের বাড়ানো বলে ডান পায়ের বাঁকানো শটে বল জালে রাখেন কাভানি। উরুগুয়ের আক্রমণ থেকে চকিতে বোমারু হানায় প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেনি পর্তুগাল ডিফেন্স। নাস্তানাবুদ হন পর্তুগিজ গোলকিপারও। আর্জেন্নিনার মতো এদিন পর্তুগালের ডিফেন্সই তাদেরকে ডুবিয়েছে বলা চলে।

২-১ ম্যাচ জিতলেও ব্যবধান আরও বাড়াতে পারত উরুগুয়ে। ম্যাচের শেষ দিকে বেশ কয়েকটি শট পেয়েও স্ট্রাইকাররা ব্যবধান বাড়াতে পারেনি। কাভানি চোট পেয়ে মাঠ ছাড়লে উরুগুয়ের আক্রমণে প্রভাব পরে।

ম্যাচ হারলেও ফ্যানেদের হৃদয় জিতে নেন রোনালদো। ৭৪ মিনিটে চোটের কারণে এদিনের উরুগুয়ের জোড়া গোলদাতা এডিনসন কাভানি মাঠ ছাড়লে কাঁধে করে তাকে সাইডলাইনের ধারে নিয়ে যান রোনালদো। দৃশ্যটি অবশ্যই চলতি বিশ্বকাপের অন্যতম সেরা দৃশ্য হয়ে রইল

 

 

 

 

 

 

 

 

 

source-gonews

Leave a comment

Your email address will not be published.