আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপের ২৩ সদস্যের দল ঘোষনা

চূড়ান্ত দল ঘোষণার একদিন আগেই আর্জেন্টিনার সম্প্রচার সংস্থা টিওয়াইসি স্পোর্টস ফাঁস করে দিয়েছিলো সম্পাওলির বিশ্বকাপ দল। টিওয়াইসি স্পোর্টসের ফাঁস করা দলের সাথে হুবহু মিলে গেছে সাম্পাওলির ঘোষিত বিশ্বকাপ স্কোয়াড। উপেক্ষিতই থেকে গেল ইন্টার মিলানের সেরা তারকা মাউরো ইকার্দি।

২৪ ঘণ্টা আগেই নিজের ক্লাব ইন্টার মিলানকে ঐতিহাসিক এক ম্যাচ জিতিয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে তুলেছেন মাউরো ইকার্দি। ২৯ গোল করে হয়েছেন ইতালিয়ান লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতাও। তবুও মন গললো না আর্জেন্টিনার কোচ হোর্হে সাম্পাওলির। জাতীয় দলের জার্সিতে প্রথম বিশ্বকাপ খেলতে ইকার্দিকে অপেক্ষা করতে হবে অন্তত আরো চার বছর। কিন্তু গত সপ্তাহে ঘোষিত ৩৫ সদস্যের প্রাথমিক দলে ছিলেন ইন্টার মিলানের এই ফরোয়ার্ড।

মেসি ও দিবালা একই পজিশনে খেলার কারণে প্রায় সবসময়ই দুজনের মধ্যে তুলনা হয়। জাতীয় দলে দুজনকে একসঙ্গে খেলানোটাও হয় কঠিন। একই কারণে মার্চে আর্জেন্টিনার সর্বশেষ আন্তর্জাতিক সূচিতে জুভেন্টাসের দিবালাকে দলের বাইরে রেখেছিলেন কোচ সাম্পাওলি।

আগামী ১৬ জুন আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ যাত্রা শুরু হবে আর্জেন্টিনার। ‘ডি’ গ্রুপে দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের অন্য দুই প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়া ও নাইজেরিয়া।

আর্জেন্টিনার ২৩ সদস্যের দল:
গোলরক্ষক: সার্জিও রোমেরো (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), ফ্রাঙ্কো আরমানি (রিভার প্লেট), উইলি কাবায়েরো (চেলসি)।

ডিফেন্ডার: ক্রিস্টিয়ান আনসালদি (তোরিনো), মার্কোস রোহো (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), মার্কোস আকুনা (স্পোর্তিং লিসবন), নিকোলাস ত্যাগলিয়াফিকো (আয়াক্স), গ্যাব্রিয়েল মারকাদো (সেভিয়া), নিকোলাস ওটামেন্ডি (ম্যানচেস্টার সিটি), হাভিয়ার মাচেরানো (হেবেই চায়না ফর্চুন), ফেডেরিকো ফ্যাজিও (রোমা)।

মিডফিল্ডার: এভার বানেগা (সেভিয়া), লুকাস বিগলিয়া (এসি মিলান), এডুয়ার্ডো সালভিও (বেনফিকা), ক্রিস্টিয়ান প্যাভন (বোকা জুনিয়র্স), ম্যাক্সিমিলিয়ানো মেজা (ইন্দিপেনদিয়েন্তে), অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া (পিএসজি), ম্যানুয়েল লানজিনি (ওয়েস্ট হ্যাম), জিওভানি লো সেলসো (পিএসজি)।

ফরোয়ার্ড: লিওনেল মেসি (বার্সেলোনা), পাওলো দিবালা (জুভেন্টাস), সার্জিয়ো আগুয়েরো (ম্যানচেস্টার সিটি), গঞ্জালো হিগুয়েইন (জুভেন্টাস) ।

source-gonews

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *