ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের প্রথম উইকেট শিকার করেন ইমরান তাহির। দক্ষিণ আফ্রিকান এ লেগ স্পিনার ইংলিশ ওপেনার জনি বেয়ারস্টোকে সাজঘরে ফেরান। ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই সাফল্য পান তাহির।

বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা উভয় দল অতীতে ৬টি ম্যাচে অংশ নেয়। এর মধ্যে উভয় দল তিনটি করে ম্যাচ জয় পায়।

হেড টু হেডের বিচারে উভয় দল সমানে সমান। তবে সম্প্রতি পারফরম্যান্স, কন্ডিশন, আবহাওয়া এবং উইকেট বিবেচনায় দক্ষিণ আফ্রিকার চেয়ে একধাপ এগিয়ে স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

তবে বিশ্বকাপে ইংল্যান্ড এর আগে সবমিলে ৭২ ম্যাচ খেলে। তার মধ্যে ৪১টিতে জয় পায় আর ২৯টিতে হেরে যায়।

অন্যদিকে দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপে এর আগে ৫৫ ম্যাচ খেলে ৩৫টিতে জয় পায় আর ১৮টিতে হেরে যায়।

সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স

বিশ্বকাপের আগে পাকিস্তানের বিপক্ষে অসাধারণ পারফরম করে ইংল্যান্ড। পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ৪-০তে জয় পান ইংলিশরা। একটি ম্যাচ বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়।

বিশ্বকাপের আনুষ্ঠানিক দুই প্রস্তুতি ম্যাচে ইংল্যান্ড একটিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে লড়াই করেও ১২ রানে হেরে যায়। অন্যটিতে আফগানিস্তানের মতো দুর্বল দলের বিপক্ষে দুর্দান্ত জয় পায়।

অন্যদিকে দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপের আগে প্রথম প্রস্তুতি ম্যাচে শ্রীলংকার বিপক্ষে ৩৩৮ রান করে ৮৭ রানের জয় পায়। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচটি শুরু হলেও বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়।

ইংল্যান্ড: জেসন রয়, জনি বেয়ারস্টো, জো রুট, ইয়ন মরগান, জস বাটলার, বেন স্টোকস, মঈন আলী, ক্রিস ওকস, আদিল রশিদ, জোফরা আর্চার ও লিয়াম প্লানকেট।

দক্ষিণ আফ্রিকা: হাশিম আমলা, কুইন্টন ডি কক, অ্যাডান মার্কওরাম, ফাফ ডু প্লে সিস, রিশি ভেন দার দাসুন, জেপি ডুমিনি, আন্দিল ফেহলুকাওয়ো, ডোয়েন প্রিটোরিয়াস, কাগিসো রাবাদা, ইমরান তাহির ও লুঙ্গি এনডিগি

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *