ইনসুলিন ইনজেকশন দেওয়ার নিয়ম

ইনসুলিন চামড়া

ইনসুলিন ইনজেকশন দেওয়ার নিয়ম

১। প্রথমে দেখে নিন ইনসুলিনের বোতলের ক্যাপ ঠিক আছে কি না এবং বোতলের গায়ে এর কার্যক্ষমতার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার যে তারিখ লেখা আছে, তা অতিক্রম করেছে কি না । লক্ষ্য করুন প্রতি মিলি লিটারে কত ইউনিট ইনসুলিন আছে-৪০ ইউনিট না ১০০ ইউনিট । সেই হিসাবে ইনসুলিন সিরিঞ্জ ব্যবহার করুন ।

২। ইনজেকশন নেবার জন্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি (সিরিঞ্জ, তুলা ইত্যাদি) হাতের কাছে রাখুন ।

৩। সাবান ও পানি দিয়ে ভালভাবে ধুয়ে নিন ।

৪। দুই হাতের তালুর মধ্যে ইনসুলিনের বোতল ধরে ভালভাবে ঘুরিয়ে নিন । তবে জোরে ঝাঁকুনি নেবেন না ।

৫। বোতলের রবার ক্যাপ স্পিরিট দিয়ে মুছে নিন এবং বাতাসে তা আপনা আপনি শুকিয়ে নিন ।

 ইনজেকশন দেওয়ার নিয়ম

৬। যতটুকু ইনসুলিন দরকার সেই পরিমাণ বাতাস সিরিঞ্জের মধ্যে টেনে নিন । মনে রাখবেন ৪০ ইউনিট সিরিঞ্জ এবং ১০০ ইউনিট ইনসুলিনের জন্য ১০০ ইউনিট সিরিঞ্জ ব্যবহার করতে হবে ।

৭। এবার সুঁচ বোতলের মুখের রাবারের মাঝখান দিয়ে ভিতরে ঢোকাতে হবে । আপনার হাত যেন সুঁচের কোন অংশে না লাগে ।

৮। সিরিঞ্জের বাতাস বোতলে ঢুকিয়ে দিন ।

৯। এখন সুঁচ সহ বোতলটি উল্টিয়ে ধরুন । দেখবেন এমনিতেই পরিমাণ মতো ইনসুলিন এসে গিয়েছে । প্রয়োজন হলে হালকা টান দিয়ে ইনসুলিন সিরিঞ্জ টেনে নিন ।

১০। সিরিঞ্জ যেন বাতাস বা বুদ্বুদ না থাকে সে বিষয়ে লক্ষ্য করুন । বাতাস বা বুদ্বুদ থাকলে তা বোতলের ভিতরে ঢুকিয়ে দিয়ে আবার ইনসুলিন সিরিঞ্জ টেনে নিন ।

১১। এবার ইনসুলিন সহ সিরিঞ্জ টেনে বের করুন এবং রোগীকে ইনজেকশন দিন ।

১২। যে স্থানে ইনজেকশন দেবেন সেই স্থান স্পিরিট মাখা তুলো দিয়ে ভালভাবে পরিস্কার করুন এবং স্থানটি বাতাসে শুকিয়ে নিন ।

 ইনজেকশন দেওয়ার নিয়ম

ইনজেকশন দেবার স্থানটির চামড়া টেনে ধরে ৪৫ থেকে ৯০ কোনাকুনি ভাবে সুঁচ ঢুকিয়ে দিন। চামড়া পাতলা হলে ৪৫ চামড়া মোটা হলে ৯০।

খেয়াল করুন ইনসুলিন চামড়া এবং মাংশপেশির মাঝের ফাকা স্থানে (চামড়া এবং মাংশপেশির মধ্যে নয়) পৌঁছাতে হবে।

ইনসুলিন ইনজেকশন দেবার স্থানগুলো হল দুই বাহুর বাইরের দিক, দুই উরুর সাম্নের দিক, দুই নিতম্বে এবং তল পেটের নিচের দিকের দুই পাশে।

প্রতিদিন একই স্থানে ইনজেকশন দেওয়া ঠিক নয়। এমন ভাবে পরিকল্পনা করতে হবে যেন এক মাসের মধ্যে একই স্থানে দুই বার ইনজেকশন না পড়ে।

একই সিরিঞ্জে স্বচ্ছ ও ঘোলাটে ইনসুলিন টানার নিয়ম

  • প্রথমে যতটুকু ঘোলাটে ইনসুলিন দরকার ততটুকু বাতাস ঘোলাটে ইনসুলিনের বোতলে ঢুকিয়ে সিরিঞ্জের সুঁচ টেনে বের করে নিন।
  • এবার যতটুকু স্বচ্ছ ইনসুলিন দরকার সেই পরিমান বাতাস স্বচ্ছ ইনসুলিনের বোতলে ঢুকিয়ে সমপরিমাণ ইনসুলিন সিরিঞ্জে টেনে নিন।
  • সুঁচ সহ স্বচ্ছ ইনসুলিন ভর্তি সিরিঞ্জ টেনে বের করুন।
  • এবার সুঁচ ঘোলাটে ইনসুলিনের বোতলে ঢুকান এবং বোতল উল্টা করে ধরুন। দেখবেন ইনসুলিন এমনিতেই সিরিঞ্জে এসে গেছে এবার ইনসুলিন সহ সিরিঞ্জ ও সুঁচ টেনে বের করুন।
  • বেশী নড়াচড়া না করে তাড়াতাড়ি ইনজেকশন নিয়ে নিন।

আজকাল প্লাস্টিকের তৈরি সম্পূর্ণ জীবাণু মক্ত সিরিঞ্জের ব্যবহার জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। যদিও এই সিরিঞ্জ একবার ব্যবহার করেই ফেলে দেবার নিয়ম, তবে যদি সুঁচ ও পিস্টন হাত বা তুলা দিয়ে না ছোঁয়া হয় তাহলে এই সিরিঞ্জ জীবাণুমুক্ত করার প্রয়োজন হয় না। সেই কারণে একজন রোগীর দেহে তা একাধিকবার ব্যবহার করা যায়।

 

 

Read More

ইনসুলিন কী ?এর ব্যবহার ,প্রকারভেদ,সংরক্ষণের পদ্ধতি ও সতর্কতা

 

 

Leave a comment

Your email address will not be published.