কাতার প্রবাসীদের জন্য সুখবর

কাতার প্রবাসীদের

কাতারে কর্মরত বিদেশিদের জন্য আকর্ষণীয় প্রস্তাব দিয়েছে দেশটি। এখন বিদেশিরা চাইলে স্থায়ী নাগরিক হতে পারবেন কাতারের। বুধবার দেশটির মন্ত্রিপরিষদে বিলটি পাস হয়েছে। এতে করে সেখানে বসবাসরত হাজার হাজার বিদেশি স্থায়ী নাগরিকত্ব পেতে যাচ্ছেন।

সর্বপ্রথম কাতারেই এ ধরনের সুবিধা দেয়া হচ্ছে উপসাগরীয় দেশগুলোর মধ্যে। তেলের দেশ কাতারের জনসংখ্যা দুই দশমিক চার মিলিয়ন; যাদের ৯০ শতাংশই বিদেশি নাগরিক। মূলত নির্মাণ শিল্পে কাজের জন্য দেশটিতে যান তারা।

নতুন এই আইনের ফলে যারা কাতারে সরকারি চাকরি করছেন, তারা এখন সেখানকার নাগরিক হয়ে যাবেন। কোন শিশুর মা কাতারের নাগরিক এবং বাবা বিদেশি হলেও শিশুটির বাবা এখন চাইলে দেশটির নাগরিক হতে পারবেন।

যারা নাগরিকত্ব সুবিধা পাবেন, তারা দেশটির অন্যান্য নাগরিকদের মতো সরকারি সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। বিনামূল্যে চিকিৎসা ও শিক্ষা নিতে পারবেন। এমনকি সশস্ত্র বাহিনী থেকে শুরু করে যেকোনো চাকরি করতে পারবেন। ব্যবসা করার ক্ষেত্রেও কাতারের কোনো নাগরিকের অংশীদারিত্ব থাকার প্রয়োজন হবে না এমন সিদ্ধান্তও গ্রহণ করতে যাচ্ছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

গত ৫ জুন সৌদি আরবের নেতৃত্বে কাতারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে মিসর, বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত। এবং কাতারের জন্য আকাশসীমা, স্থলবন্দর ও সমুদ্রবন্দরও বন্ধ করে দেয় এই চারটি দেশ। চলমান সংকটের মধ্যেই কাতার নিজেদের দেশে বিদেশিদের নাগরিকত্ব দেয়ার সিদ্ধান্ত জানাল।

Leave a comment

Your email address will not be published.