কার্তিক বলেন, খুব হতাশাজনক পারফরম্যান্স হয়েছে

ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিং— তার দলের কোনও বিভাগই যে শুক্রবার (২৭ এপ্রিল) ফিরোজ শাহ কোটলায় জেতার মতো খেলতে পারেনি, তা দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের কাছে হারের পরে সাংবাদিক বৈঠকে স্বীকারই করে নিলেন কলকাতা নাইট রাইডার্স অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক। হতাশ কার্তিক বলেন, ‘‘তিন বিভাগেই আমরা খুব খারাপ করেছি আজ। খুব হতাশাজনক পারফরম্যান্স হয়েছে আজ আমাদের।’’

ক্রিকেট ইতিহাসে টি-টোয়েন্টি ক্ষেত্রে সাধারণত টার্গেটে যারা খেলে বেশিরভাগ জয় তাদের পক্ষেিই কথা বলে।তাই শুক্রবার টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয় কেকেআর। কিন্তু এমন খেললে কিভাবে জিতবে? কার্তিক বলেছিলেন, রান তাড়া করে জিততেই পছন্দ করেন তারা। কিন্তু শুক্রবার রান তাড়া করতে গিয়ে যে বেহাল দশা হল নাইট ব্যাটসম্যানদের তাতে প্রশ্ন উঠছে এই সিদ্ধান্ত নিয়ে। কার্তিক অবশ্য মনে করছেন, সিদ্ধান্তটা সঠিকই ছিল। বলেন, ‘‘আসলে শিশির পড়লে রান তাড়া করাটা অনেক সোজা হয়। আজ শিশির পড়েনি বলেই রান তাড়া করা কঠিন হয়ে ওঠে।’’

কিন্তু দিল্লির তুমুল গরমে কেন শিশির পড়বে বলে ভাবলেন, তা জানতে চাওয়ায় নাইটদের নেতা বলেন, ‘‘আমরা খবর নিয়েই জেনেছিলাম যে, আগের ম্যাচেও এখানে শিশির পড়েছিল। সেই জন্যই ভেবেছিলাম আজও সে রকমই আবহাওয়া থাকতে পারে। কিন্তু একেবারেই যে শিশির পড়বে না, তা কী করে বুঝব?’’

এ দিন তরুণ পেসার শিবম মাভি শেষের দিকের ওভারে প্রচুর রান দেন। দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ার শেষ ওভারে তার বলে চারটি ছয় ও একটি চার মেরে দলকে বড় রান এনে দেন।  অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপে সফল বোলার মাভি এ দিন ছ’টি ছয় দেন দিল্লির ব্যাটসম্যানদের। তবে অধিনায়ক তার দলের তরুণ সদস্যের পাশেই আছেন। কার্তিক বলেন, ‘‘এ রকম হতেই পারে। পেসাররা শেষের দিকে এ রকম মার খেয়েই যায়। তবে আমাদের ওর পাশে থাকা উচিত।’’

Leave a comment

Your email address will not be published.