চ্যাম্পিয়ন হয়ে বাছাইপর্ব শেষ করেছে আফগানিস্তান

আরও একবার ব্যাটসম্যানরা ডোবালেন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। আফগানিস্তানের বোলারদের সামনে একেবারেই সুবিধা করতে পারলেন না ক্রিস গেইল, মারলন স্যামুয়েলসরা। ফলে ইনিংসের ১৯ বল বাকি থাকতেই ২০৪ রানে অলআউট ক্যারিবীয়রা। আফগানিস্তানও ম্যাচটা জিতেছে সহজেই, ৫৬ বল আর ৭ উইকেট হাতে রেখে। এই জয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়ে বাছাইপর্ব শেষ করেছে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটি।

হারারেতে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ফাইনালে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। মুজিব উর রহমানের শিকার হয়ে ক্রিস গেইল ফিরে যান মাত্র ১০ রান করে। তারপরও ১৮তম ওভার চলার সময় ২ উইকেটে ৭৩ রান ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের। মনে হচ্ছিল, সহজেই আড়াইশোর্ধ একটা পুঁজি পেয়ে যাবে জেসন হোল্ডারের দল।

কিন্তু এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারিয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ১০১ রানের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে ফেলা ক্যারিবীয়রা বড় সংগ্রহ গড়ার চেষ্টা আর করতে পারেনি। সিমরন হেটমেয়ার (৩৮) আর রভম্যান পাওয়েলের (৪৪) দুটি ইনিংসে ভর করে কোনোমতে দুইশ পেরোয় তারা।

জবাবে ওপেনার মোহাম্মদ শাহজাদ আর মিডল অর্ডারের রহমত শাহর হাফসেঞ্চুরিতে জয় পেতে একদমই কষ্ট হয়নি আফগানিস্তানের। ৯৩ বলে ১১ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় ৮৪ রান করে ক্রিস গেইলের শিকার হয়ে ফেরেন শাহজাদ। হাফসেঞ্চুরি করে ৫১ রানে গেইলের দ্বিতীয় শিকার হন রহমতও।

তবে শামিউল্লাহ শেনওয়ারি আর মোহাম্মদ নবীর জুটিতে আর কোনো ঝামেলায় পড়তে হয়নি আফগানদের। ৩৩ বলে ১ বাউন্ডারিতে ২০ রানে অপরাজিত ছিলেন শেনওয়ারি। মাত্র ১২ বলে ৩ ছক্কায় হার না মানা ২৭ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন নবী।

Leave a comment

Your email address will not be published.