চ্যারিটি টি-২০ ম্যাচ এ তামিমদের বড় পরাজয়

লর্ডসে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ক্যারিবিয়ানদের আক্রমণাত্মক শুরু। তবে ব্যাতিক্রম ছিলেন টি-২০ ক্রিকেটের পোষ্টার বয় ক্রিস গেইল। ২৮ বলে ১৮ রানে গেইল ফিরলেও লুইস, মারলন স্যামুয়েলস, রামদিন ও শেষ দিকে আইপিএল কাঁপানো আন্দ্রে রাসেলের বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ের পর স্যামুয়েল বদ্রি, রাসেলের দারুণ বোলিংয়ে অনায়াস জয় পেল বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

কার্লোস ব্র্যাথওয়েটের দল জিতেছে ৭২ রানে। ২০০ রানের লক্ষ্য তাড়ায় ১৬ ওভার ৪ বলে ১২৭ রানে গুটিয়ে যায় বিশ্ব একাদশ। ফিল্ডিংয়ের সময় পাওয়া চোটে ব্যাটিংয়ে নামেননি বিশ্ব একাদশের পেসার টাইমল মিলস।

ক্রিকেট তীর্থ লর্ডসে বৃহস্পতিবার (৩১ মে) দুই প্রান্তে দুই রকম শুরু পায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এক প্রান্তে রানের জন্য সংগ্রাম করছিলেন ক্রিস গেইল, আরেক প্রান্তে বোলারদের চোখের পানি-নাকের পানি এক করছিলেন লুইস।

বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে ২৩ বলে পঞ্চাশ ছোঁয়া লুইসকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের শুরুর জুটি ভাঙেন রশিদ খান। লুইস ২৬ বলে পাঁচটি করে ছক্কা-চারে ফিরেন ৫৮ রান করে।

মিলসকে টানা দশটি ডট বল খেলা গেইলের ইনিংস সেভাবে গতি পায়নি কখনও। শোয়েব মালিকের বলে বোল্ড হয়ে শেষ হয় বাঁহাতি এই ওপেনারের ছোট্ট ইনিংস।

শহিদ আফ্রিদিকে বেরিয়ে এসে খেলার চেষ্টায় স্টাম্পড হয়ে ফিরে যান আন্দ্রে ফ্লেচার। দ্রুত তিন উইকেট হারানো দলকে পথ দেখান দিনেশ রামদিন ও স্যামুয়েলস। তৃতীয় উইকেটে দুই জনে ৫.৩ ওভারে গড়েন ৫২ রানের জুটি।

ক্রিজে এসেই আফ্রিদিকে দুই ছক্কা হাঁকানো স্যামুয়েলসকে ফেরান রশিদ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান ২২ বলে চার ছক্কা আর দুই চারে করেন ৪৩ রান।

চ্যারিটি টি-২০ ম্যাচ এ তামিমদের বড় পরাজয়

আফ্রিদির বলে রশিদের হাতে জীবন পাওয়া রামদিন অলরাউন্ডার রাসেলের সঙ্গে গড়েন আরেকটি কার্যকর জুটি। উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান রামদিন ২৫ বলে তিনটি করে ছক্কা-চারে অপরাজিত ৪৪ রানের আক্রমণাত্মক ইনিংস খেলেন।

রামদিনের সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন পঞ্চম উইকেটে ৪৭ রানের জুটি গড়া রাসেল ১০ বলে তিনটি ছক্কায় করেন ২১ রান।

খরুচে বোলিংয়ে ৪৮ রানে ২ উইকেট নেন আফগান লেগ স্পিনার রশিদ। পাকিস্তানের দুই স্পিনার মালিক ও আফ্রিদি নেন একটি করে উইকেট।

এই ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয় নেপালের সন্দীপ লামিছানের। ১৭ বছর বয়সী লেগ স্পিনার একমাত্র ওভারে ১২ রান দিয়ে থাকেন উইকেটশূন্য।

বিশাল রান তাড়ায় বদ্রি ও রাসেলের দারুণ বোলিংয়ে শুরুটা ভালো হয়নি বিশ্ব একাদশের। ৮ রানের মধ্যে ফিরে যান তামিম, লুক রনকি, স্যাম বিলিংস ও দিনেশ কার্তিক।

দুই অঙ্ক ছুয়ে ফিরে যান মালিক ও আফ্রিদি। ব্যাটসম্যানদের আসা যাওয়ার মধ্যে ৩৭ বলে ৭টি চার ও তিনটি ছক্কায় ৬১ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন থিসারা। টি-টোয়েন্টিতে লঙ্কান অলরাউন্ডারের এটাই সর্বোচ্চ।

দলের সংগ্রহ একশ পার হতেই ফিরে যান থিসারা। এরপর বেশিদূর এগোয়নি বিশ্ব একাদশের ইনিংস।

৪১ রানে ৩ উইকেট ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেসার কেসরিক উইলিয়ামস। লেগ স্পিনার বদ্রি ৩ ওভারে মাত্র ৪ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। রাসেল ২ উইকেট নেন ২৫ রানে।

উল্লেখ্য, গত বছরের সেপ্টেম্বরে হারিকেন ইরমা ও মারিয়ার আঘাতে লণ্ডভণ্ড হয়ে যায় ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জের বেশ কয়েকটি স্টেডিয়াম। স্টেডিয়ামগুলোর সংস্কারে তহবিলের জন্য আইসিসির উদ্যোগে ক্রিকেটের বধ্যভূমিতে আয়োজন করা হয়েছে এই চ্যারিটি টি-২০ ম্যাচ।

 

source-gonews

Leave a comment

Your email address will not be published.