জোড়া গোল করেন ডি মারিয়া।

চোটের জন্য নেই নেইমার। চোট থেকে সেরে ওঠা কিলিয়ান এমবাপ্পে, এডিনসন কাভানি নেই শুরুর একাদশে। তারকা ফরোয়ার্ডদের অনুপস্থিতিতে পুরো দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিলেন অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া। দ্বিতীয়ার্ধে বদলি হিসেবে নেমে গোল পেলেন এমবাপ্পে। জালের দেখা পেলেন মাউরো ইকার্দিও। পিএসজি পেল বড় জয়। শুক্রবার ফরাসি লিগে নিসকে তাদেরই মাঠে ৪-১ গোলে হারিয়েছে টমাস টুখেলের দল। প্রথমার্ধে জোড়া গোল করেন ডি মারিয়া। ম্যাচের শেষ দিকে নিসের জালে বল পাঠান এমবাপ্পে ও ইকার্দি।

১৫ মিনিটে ফরাসি চ্যাম্পিয়নদের এগিয়ে দেন ডি মারিয়া। স্বদেশি ইকার্দির চমৎকার পাস থেকে কোনাকুনি শটে জাল খুঁজে নেন আর্জেন্টাইন প্লেমেকার। ২১ মিনিটে বাঁ পায়ে দারুণ চিপে ব্যবধান বাড়ান ডি মারিয়াই। ৬৭ মিনিটে ইগনাতিয়োস গানাগোর গোলে ব্যবধান কমায় নিস। কিন্তু চার মিনিটের মধ্যে নিসের দুই খেলোয়াড় মাঠ ছাড়লে এলোমেলো হয়ে যায় জমে ওঠা ম্যাচ।

৮৩ মিনিটে মাঠে নামার পাঁচ মিনিটের মধ্যে জালের দেখা পেয়ে যান এমবাপ্পে। ডি মারিয়ার শট দান্তে ফিরিয়ে দিলে বল পান অরক্ষিত এমবাপ্পে। তরুণ ফরাসি ফারোয়ার্ড গড়ানো শটে স্কোর লাইন করে ফেলেন ৩-১। ইনজুরি টাইমে চতুর্থ গোলটি আদায় করে নেয় পিএসজি। প্রতি আক্রমণ থেকে বল পেয়ে ডি মারিয়া বল বাড়ান এমবাপ্পেকে। তার ডিফেন্স চেরা স্কয়ার পাসে বাকিটা সহজেই সারেন ইন্টার মিলান থেকে ধারে খেলতে আসা ইকার্দি।

Leave a comment

Your email address will not be published.