তিন ম্যাচ সিরিজে ১-১ এ সমতায় ফিরল সফরকারীরা।

hope

ওয়েস্ট ইন্ডিজের সিরিজের প্রথম ম্যাচে ৫ উইকেটের জয় নিয়ে এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। মঙ্গলবার দ্বিতীয় ম্যাচে ঘুরে দাঁড়িয়েছে ক্যারীবিয়রা। শাই হোপের লড়াকু সেঞ্চুরিতে তিন ম্যাচ সিরিজে ১-১ এ সমতায় ফিরল সফরকারীরা।মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জেতার পর স্বাগতিকদের ব্যাট করতে পাঠায় ক্যারিবীয় অধিনায়ক রোভম্যান পাওয়েল।৭ বলে ৫ রান করে পায়ে চোট পেয়ে লিটন দাস মাঠ ছাড়েন।

এরপর দ্রুত ফিরে যান ৬ বলে শূন্য রান করা ইমরুল কায়েস। ক্যারিয়ারের ৪৩তম হাফসেঞ্চুরি তোলার পর ৬৩ বলে ৫০ রান করে আউট হন তামিম ইকবাল। তামিমের সঙ্গে ১১১ রানের জুটি গড়েন মুশফিকুর রহিম। ডান-হাতি এই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান নিজের ৩২তম হাফসেঞ্চুরি আদায় করেন। ৮০ বলে ৬৩ রানের ইনিংস খেলার পর ফেরেন মুশফিকও।মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ৫১ বলে ৩০ রান তুলে নেন। আট বলে ছয় রান করা সৌম্য সরকার ফিরে যান ড্রেসিং রুমে। সপ্তম ওভারে চোট কাটিয়ে লিটন ফিরলেও সুবিধা করতে পারেননি। সব মিলিয়ে ৪ বলে ৮ রান করেন এই ওপেনার।সাকিব আল হাসান ৬২ বলে ৬৫ রান তুলে নেন।

শেষ পর্যন্ত ১১ বলে ৬ রান করেন মাশরাফি। মিরাজ তুলে নেন ১০ বলে ১০ রান।নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৫৫ রান সংগ্রহ করে টাইগাররা।শুরুতেই মেহেদী হাসান মিরাজের ঘূর্ণিতে ৬ বলে ৩ রান করা চন্দ্ররপল হেমরাজ ফিরে যান। ফাস্ট ডাউনে নামা ড্যারেন ব্রাভোকে নিয়ে ৬৫ রানের জুটি গড়েন ওপেনার শাই হোপ। দলীয় ৭০ রানের মাথায় রুবেল হোসেনের বলে ফিরে যান ৪৩ বলে ২৭ রান করা ব্রাভো।চার নম্বরে ব্যাট করতে নামা মারলন স্যামুয়েলসকে নিয়ে ফের ৬২ রানের জুটি গড়েন হোপ। ৪৫ বলে ২৬ রান করা স্যামুয়েলসকে আউট করে বাংলাদেশকে ম্যাচে ফেরান মুস্তাফিজুর রহমান।রুবেলের বলে ১০ বলে ১৪ রান করে আউট হন শিমরন হেটমেয়ার।

১-১ এ সমতায় ফিরল সফরকারীরা

কিছুক্ষণ পরেই ২ বলে ১ রান করা ক্যারিবীয় অধিনায়ক পাওয়েলকে ফিরিয়ে দেন টাইগার দলপতি। এতে জমে উঠে খেলা।যদিও একপ্রান্ত আগলে রেখেই দলকে সাহস দিচ্ছিলেন হোপ। তুলে নেন ক্যারিয়ারের তৃতীয় সেঞ্চুরি।১৮ বলে ৮ রান করা রোস্টন চেজ মুস্তাফিজের বলে মাঠ ছাড়েন। তবে কেমো পলকে নিয়ে ৭৮ রানের গুরুত্বপূর্ণ জুটি গড়ে দুই বল বাকি থাকতেই দলকে জয় উপহার দেন হোপ।শেষ পর্যন্ত ১৪৪ বলে ১৪৬ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন ডান-হাতি এই উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান। ৩১ বলে ১৮ রানে অপরাজিত ছিলেন কেমো পল।বাংলাদেশের হয়ে মুস্তাফিজ ও রুবেল দুটি করে উইকেট নেন। একটি করে উইকেট শিকার করেন মাশরাফি ও মিরাজ।

 

 

 

 

 

source-rtv

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *