তেঁতুল বনে জোছনা-পর্ব-(১৮) হুমায়ূন আহমেদ

ইমাম সাহেবের লাশ তার ঘরের চৌকির ওপর রাখা আছেকম্বল দিয়ে লাশটা ঢাকাগন্ধ সহজে বের হবে নামতি বাড়ির দরজা জানালা বন্ধ করে দিয়েছেশিয়াল কুকুরের ঘরে ঢােকার পথ বন্ধসে বসে আছে উঠানেউঠানের দুমাথায় দু’টা হারিকেন জ্বালিয়েছেঅগ্নিবন্ধনজিন, ভূতের দুই দিক থেকেই আসা বন্ধ মতি এক ফাকে ইমাম সাহেবের রান্নাঘরও দেখে এসেছে। চাল আছে, ডাল আছে, পিয়াজ রসুন আছেতেঁতুল বনে জোছনা

তেলের শিশিতে তেলও আছে। ক্ষিধাটা ভালােমতাে লাগলে চাল ডাল মিশিয়ে খিচুড়ি বসিয়ে দিতে হবেপেট ভরা থাকলে ভয় কম লাগে

সঙ্গে গাঁজার সিগারেট আছে ছয়টাএকেকটার দাম পড়েছে দশ টাকা করেছটা স্বাট টাকামতি মুলামুলি করে পঞ্চাশ টাকায় কিনেছেএইসব হলাে আরাম করে খাওয়ার জিনিসতার এমনই কপাল মরা লাশের পাশে বসে সব কটা পুরিয়া শেষ করতে হবেবেহুদা পঞ্চাশ টাকা চলে গেল| প্রথম গাঁজার পুরিয়া খেয়ে মতির দুঃখবােধ কেটে গেলমায়াবােধ প্রবল হলােতার কাছে মনে হলােইমাম সাহেব আহারে বেচারা! মরে পড়ে আছেনিকটআত্মীয় পরআত্মীয় কেউ নেই

ইমাম সাহেবের মতাে একজন নামাজি ভালাে মানুষের পাশে কে আছেআছে মতির মতাে দুষ্টলােকযে ঈদের নামাজ ছাড়া অন্য কোনাে নামাজে সামিল হয় নামাঝে মধ্যে তওবা করে পাপমুক্ত অবশ্যি হয়সে অবশ্যি বুঝে, তওবাটা করে সে আল্লাহপাককে কঁকি দেয়ার চেষ্টা করছে। মতির ধারণা আল্লাহপাকও ব্যাপারটা বুঝেন, তবে বুঝেও চুপ করে থাকেনএই জন্যেই তিনি রহমানুর রহিম। 

মৃত্যুর পর মতির কঠিন শাস্তি হবে এটা সে জানেযে পড়ে থাকে বাজারের মেয়েছেলের বাড়িতে তাকে আল্লাহপাক আদর করে বলবেনওরে মতি যা বেহেশতে ঢােকতাম্বুর নিচে হুরপরী আছেযারে যারে পছন্দ হয় সাথে নিয়া সরুবান তহুরা খা। যত ইচ্ছা খাতা হবে নাআগুনে তাকে পুড়তেই হবে। দু একটা ভালাে কাজ সে যে করে নাই তানা করেছেতবে খারাপ কাজের তুলনায় ভালাে কাজ এতই নগণ্য যে দোজখের আগুন থেকে সেই পুণ্য তার একটা কেনি আংগুলও বাঁচাতে পারবে না। 

এই যে ইমাম সাহেবকে সে পাহারা দিচ্ছে এটা তাে একটা ভালাে কাজকারণ লােকটা ভালােচেয়ারম্যান সাব লােকটাকে কানে ধরে চক্কর দেয়ায়েছেনঅন্যায় করেছেননির্দোষ লােকের শাস্তি হয়েছেদোষীও হইতে পারেমানুষ চেনা বড় কঠিন

সবাই তাকে ভালাে মানুষ জানে, আসলে সে বিরাট চোরমরজিনার নাকফুল চুরি করে কুড়ি টাকায় বেচেছিল অবশ্য এই টাকাটা সে জরিনার পেছনেই খরচ করেছে। আধা কেজি গরম জিলাপি কিনে খাইয়েছেনিজে একটাও খায় নি। 

হাসানকে জিজ্ঞেস করলে জানা যায়। 

হাসান নিশ্চয়ই মিথ্যা কথা বলবে নাতবে হাসানকে জিজ্ঞেস করতে ইচ্ছা করে নাযদি হাসান বলে ঘটনা সত্য তখন কী হবে? মৃত মানুষের খারাপ কিছু নিয়ে আলােচনা করতে নাই। মৃত মানুষকে নিয়ে ভালাে ভালাে কথা বলতে হয়এটাই নিয়মমতি মরে গেলে কেউ কি তাকে নিয়ে একটা ভালাে কথা বলবেমনে হয় না । 

মতি দ্বিতীয় সিগারেটটা ধরলিজিনিস খারাপ দেয় নাই— এক নম্বরি জিনিসই দিয়েছে। মনে ফুর্তির ভাব আসি আসি করছেহয়তাে এসেও যাবেজম্পেশ খিদে জানান দিচ্ছেএক ফাকে খিচুড়ি বসায়ে দিতে হবেডিম পাওয়া গেলে ভালাে হতােএকটা দুটা খিচুড়ির মধ্যে ছেড়ে দিলে স্বাদ যা হয় তার কোনাে তুলনা নাইতেতুল গাছের নিচে খচমচ শব্দ হচ্ছেমতি কৌতুহলী হয়ে তাকাচ্ছেসাধারণ অবস্থায় থাকলে ভয় লাগতএখন সে সাধারণ অবস্থায় নাশিয়ালটিয়াল হবে

মরা মানুষের গন্ধ পেয়ে উকি ঝুকি মারছেহাতের কাছে একটা লাঠি রাখা দরকার শিয়ালের পাল মরা মানুষ একবার খেতে শুরু করলে আধাপাগল হয়ে যায়, তখন জীবিত মানুষ খেতে চায়ঘরের ভেতরও খচমচ শব্দ হচ্ছেবেড়া ভেঙে কোনাে শিয়াল কি ভিতরে ঢুকে পড়েছে ? ঢুকে পড়লে কিছু করার নাইখাওয়া দাওয়া করে যা থাকে তাই কবরে ঢুকিয়ে দিতে হবে। মতি আরেকটা সিগারেট ধরাল।

মৌতাতটা মােটামুটি জমছেমনে ফুর্তির ভাব চলে এসেছেএটা কিছুতেই নষ্ট হতে দেয়া যাবে না। মতি গুনগুন করে গানগাওয়ার চেষ্টা করতে লাগলএই পরিস্থিতিতে ধর্মীয় গান গাইতে পারলে ভালাে হতােচলাে যাই মদিনা ধরনের গানসে রকম গান একটাও মনে পড়ছে 

সে মাথা দুলাতে দুলাতে সিনেমার গান শুরু করলএই সিনেমাটা সে মর্জিনাকে নিয়ে নেত্রকোনার হলে দেখে এসেছেখুবই ট্রাজেডি সিনেমামতি উদাস গলায় গাইছে— 

হাত খালি গলা খালিকন্যার নাকে নাক ফুল সেই ফুল পানিতে ফেইল্যা কন্যা করল ভুল। 

আবারাে খচখচ শব্দ হচ্ছেমতির হাসি পেয়ে গেলআজ মনে হয় খচখচানির রাত এবারের খচখচানিটা অন্য রকমচারপেয়ে জন্তুর খচখচানি না, দু পেয়ে মানুষের শুকনাে পাতার ওপর দিয়ে হেঁটে আসার শব্দ। মতি বলল, কে ? বলেই দেখল ডাক্তার সাহেবগলায় মাফলার পেঁচিয়েছেন বলে মানুষটাকে অন্যরকম লাগছেদেখে মজা লাগছেগাঁজার কারণে এটা ঘটছেএক নম্বরি গাঁজার এই গুণ যা দেখা যায় ভালাে লাগে। ডাক্তার সাহেব যদি মাফলার ছাড়া আসত তাহলেও দেখতে ভালাে লাগত। 

মতি নাকি

জ্বে ডাক্তার সাবকী কর ? মরা পাহারা দেই। 

গাঁজা খাচ্ছ নাকি ? বিশ্রী গন্ধ আসছেতােমার গাঁজার অভ্যাসও আছে তা তাে জানতাম না। 

মতি জবাব দিল নালজ্জা পেয়ে মুখ নিচু করলডাক্তার সাহেবকে দেখে তার ভালাে লাগছেখাঁটি সােনা মানুষ বলেই এত রাতে খোঁজ নিতে এসেছেএই মানুষটার সাইকেল চুরি করাটা খুবই অন্যায় হয়েছেমতি ঠিক করে ফেলল অন্য কোনাে জায়গা থেকে একটা ভালাে সাইকেল চুরি করে ডাক্তারকে দিয়ে আসবেতার ডাবল পাপ হবেহলেও কিছু করার নেইসাইকেলের অভাবে লােকটার কষ্ট হচ্ছেসবচেভালাে হয় যদি পুরনাে সাইকেল জোগাড় করা যায়। 

ডেডবডি থানায় নিয়ে যাবার কথা ছিলনেয় নি ? জ্বে নাইমাম সাহেবের আত্মীয়স্বজনকে খবর দেয়া হয়েছে

জ্বে নাকেউ তারার ঠিকানাই জানে নাশুধু জানে বাড়ি মধুপুর ভালাে সমস্যা হলাে তাে। 

আনিস বারান্দায় উঠে এলতার মন বেশ খারাপ হয়েছেএকটা মানুষ মারা গেছেঅথচ তার আশেপাশে কেউ নেইএকজন শুধু উঠানে বসে গাঁজা টানছেমানুষ এত নিষ্ঠুর হবে কেন ? না-কি সমস্যাটা ইমাম সাহেবের ? বিদেশী মানুষ দীর্ঘদিন এখানে থেকেও কারাে সঙ্গে মিশ খাওয়াতে পারেন নি। 

আনিস বলল, তুমি একা বসে আছআর কেউ নেই এটা কেমন কথা

মতি বলল, সবেই ভয় খাইছেফাঁসের মরাআর জায়গাটাও গেরামের বাইরে পড়ছেতারপরে ধরেন পুলিশের ঝামেলা আছে। 

খাওয়া দাওয়া করেছ মতি

জ্বে নাতােমার খাবার ব্যবস্থা তাে করা দরকার। 

চিন্তা কইরেন না ডাক্তার সাবইমাম সাহেবের পাকের ঘরে চাইল ডাইল সবই আছে

Leave a comment

Your email address will not be published.