তেঁতুল বনে জোছনা-পর্ব-(৩) হুমায়ূন আহমেদ

ডাক্তার জংলী কাঠগােলাপ গাছে হেলান দিয়ে সাইকেলটা রাখলসাইকেলের কেরিয়ারে বাঁধা পেটমােটা চামড়ার ব্যাগ হাতে নিল মগড়া খালের পাশে সুন্দর বসার ব্যবস্থা আছেজনৈক বিধুভূষণ চক্রবর্তীর বানানাে গােলাকৃতি ঘরযে ঘরের মেঝে শ্বেতপাথরে বাঁধানাে

তেঁতুল বনে জোছনা

একসময় মগড়া খাল বিশাল নদী ছিল। তার নাম ছিল হাবলংগ নদীনদীর তীরে ছিল মহাশ্মশানদূর দূরান্ত থেকে খাটিয়ায় করে মরা আসতসেই সময় বিধুভূষণ চক্রবর্তী শশান যাত্রীদের জন্য এই ঘর বানিয়ে দেননিজের কর্মকাণ্ডও দেয়ালে লিখে রাখেন— 

শ্মশানবন্ধুর কল্যাণ কর্মে অনাথ কাঙাল বিধুভূষণ চক্রবর্তী কর্তৃক বঙ্গতারিখ ১৩২০ সনে নির্মিত। শুধুমাত্র ব্রাহ্মণ প্রবেশ করিবেক 

অন্যথায় মহাপাতকী হইবেনদেড়শ বছরে হাবলংগ নদী হেজেমেজে হয়ে গেছে মগড়া খালশ্মশানবন্ধুদের কল্যাণকর্মে নির্মিত ঘর ধ্বসে গিয়েছেউত্তরদিকের দেয়াল ছাড়া আর কিছুই অবশিষ্ট নেইতবে শ্বেতপাথরের মেঝে অবিকৃত আছেজোছনার সময় মেঝে থেকে জোছনা ঠিকরে পড়েডাক্তার লোক লাগিয়ে মেঝে পরিষ্কার করিয়েছেসে মাঝে মাঝে এখানে এসে বসে, যদিও জায়গাটা বিপজ্জনকগত বৎসর দুটা গরু এই জায়গায় সাপের কামড়ে মারা গেছেতার আগের বছর এক ভিখিরিণী মারা গেছেভিখিরিণীর পরিচয় উদ্ধার হয় নিমনে হয় অনেক দূরের কোনাে গ্রাম থেকে ভিক্ষা করতে করতে এদিকে চলে এসেছিলদুপুরে ক্লান্ত হয়ে আঁচল পেতে নির্জন শুশনি ঘরে শুয়েছিলসেখানেই তাকে সাপে কাটল। 

তেঁতুল বনে জোছনা-পর্ব-(৩) হুমায়ূন আহমেদ

ডাক্তার চামড়ার ব্যাগ খুলে পেটমােটা একটা শিশি বের করে শিশির মুখ খুললছড়িয়ে পড়ল কার্বলিক এসিডের কড়া গন্ধসে যতক্ষণ এখানে থাকে মুখ খােলা অবস্থায় কার্বলিক এসিডের বােতলটা পাশে থাকেযেকোনাে পুরনাে ধ্বংসস্থূপ হলাে গোখরা সাপের আস্তানাপ্রচণ্ড বিষধর সাপ ভীরু প্রকৃতির হয়ে থাকেতাদের স্বভাব হলাে মানুষের কাছ থেকে দূরে থাকাএই ক্ষেত্রে মানুষেরও কিছু করণীয় আছেমানুষদের উচিত তাদের উপস্থিতি জানান দেয়া। 

ডাক্তারের চায়ের পিপাসা পেয়েছেতার পেটমােটা ব্যাগে চায়ের সব সরঞ্জামই আছেফ্লাস্ক ভর্তি ফুটন্ত গরম পানিটি ব্যাগ, চিনিআল গ্রে চায়ের একটি টিনের কৌটাও আছেআল গ্রে চায়ের বিশেষ গন্ধটা নবনীর অতি প্রিয়এই কৌটারমুখ এখনাে খােলা হয় নিসামনের সপ্তাহেই নবনীর আসার কথাতখন খােলা হবে। 

চা বানানাের সরঞ্জাম ব্যাগ থেকে বের করা হয়েছেসন্ধ্যা মিলিয়ে যাবার পরেও জায়গাটা পুরােপুরি অন্ধকার হয় নিঅবশ্যি অন্ধকার হলেও সমস্যা নেইব্যাটারিতে চলে এমন একটা ছােট্ট লণ্ঠন ব্যাগে আছেচা কড়া হয়ে গেছেতারপরেও চুমুক দিয়ে আনিসের ভালাে লাগলসে ব্যাগের ভেতর থেকে সিগারেটের প্যাকেট বের করলমাস ছয়েক হলাে সে সিগারেট ছাড়ার প্রাণপন চেষ্টা করছেলাভ হচ্ছে নাসিগারেট খাওয়া বরং বেড়ে গেছেনবনী এলে সিগারেট খাওয়া পুরােপুরি ছাড়তে হবেনবনী সিগারেটের গন্ধ একেবারেই সহ্য করতে পারে না

তেঁতুল বনে জোছনা-পর্ব-(৩) হুমায়ূন আহমেদ

তার নাকি সিগারেটের প্যাকেট দেখলেই গন্ধে মাথা ধরে, বমি চলে আসেগত সপ্তাহে নবনীকে চিঠি লেখা হয় নিনির্জন জায়গায় বসে চট করে কয়েক লাইনের চিঠি লিখে ফেলা যায়চিঠির সরঞ্জামকাগজ, বলপয়েন্ট, খাম, ডাকটিকিট সবই তার মােটা ব্যাগে আছেচিঠি লিখবে কি লিখবে নাআনিস মনস্থির করতে পারছে নাতার সিগারেট শেষ হয়েছে, সে আরেকটা সিগারেট ধরিয়েছেচিঠি লেখার পরিকল্পনা আপাতত বাতিলতবে চিঠির ব্যাপারটা মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছেমস্তিষ্কের একটা অংশ গুটগুট করে চিঠি লেখা শুরু করে দিয়েছেআনিস এখন যদি সাইকেলে উঠে রওনা দেয় তবু চিঠি লেখা বন্ধ হবে না। 

নবনী

আমাদের এখানে আজ হঠাৎ করে টর্নেডাের মতােহলাে টর্নেডাের স্থায়িত্ব ছিল কমদুই থেকে আড়াই 

মিনিট হবেতবে এই কিছুক্ষণেই যা ঘটেছে তার নাম লণ্ডভণ্ডছবি তুলে রাখলে তুমি দেখতে পেতেফিল্ম ছিল 

বলে ছবি তােলা হয় নিএখানের বাজারে ফিল্ম পাওয়া যায় নাফিল্মের জন্যে লােক পাঠাতে হয় নেত্রকোনায়তােমার যদি মনে থাকে তাহলে ফিল্ম নিয়ে এসােএই অজ অঞ্চলে মাঝে মাঝে সুন্দর সুন্দর ব্যাপার ঘটে যার ছবি তুলতে ইচ্ছে করে। 

আমার খবর ভালাে হাসপাতালে প্রচুর রােগী আসেতেমন কোনাে কারণ ছাড়াই আমার ধন্বন্তরী ডাক্তার সুনাম ছড়িয়ে পড়েছেএরা আমার নাম কি দিয়েছে জান ? আমার নাম দিয়েছেসাইকেল ডাক্তারএকটা সাইকেল নিয়ে ঘােরাফেরা করি এই জন্যেই এই নামভাগ্যিস ঘােড়ার পিঠে চড়ি নাচড়লে এরা নাম দিত ঘােড়া ডাক্তারআমার বিষয়ে যে মজার ব্যাপারটি ছড়িয়েছে সেটা হলােযখন আমি ভিজিটে যাই এবং রােগীর বাড়ির সামনে সাইকেল থেকে নেমে ঘণ্টা দেই ঠিক তখনি সাইকেলের ঘণ্টা শুনে রােগীর রােগ সেরে যায়ওষুধপত্র কিছুই লাগে নাআমি খুব ভয়ে ভয়ে আছি 

তেঁতুল বনে জোছনা-পর্ব-(৩) হুমায়ূন আহমেদ

অচিরেই এরা হয়তাে আমাকে সাইকেল ডাক্তারডাকা বন্ধ করে ঘন্টা ডাক্তারডাকা শুরু করবে। 

তুমি যে চারটা অর্কিড দিয়ে গিয়েছিলে সেইগুলাে বারান্দার যে জায়গায় ঝুলাতে বলেছ সেখানেই ঝুলানাে হয়েছেযেভাবে যত্ন করতে বলেছ সেভাবেই যত্ন করছিতােমার হিসেব মতাে গত মাসেই গাছগুলােতে ফুল আসার কথাএখনাে কিন্তু আসে নিহঠাৎ করে অর্কিডের প্রসঙ্গ কেন এলবলিপরশু রাতে স্বপ্নে দেখি গাছগুলােতে ফুল ফুটেছেস্বপ্নের ফুল বাস্তবের ফুলের চেয়েও সুন্দর হয়স্বপ্নে দেখলাম গাছগুলােতে শুধু যে নীল রঙের ফুল ফুটেছে তা নাফুলগুলাে চাঁদের জোছনার মতাে চারপাশে আলাে ছড়াচ্ছেআমি খুবই ব্যস্ত হয়ে এই অপূর্ব দৃশ্য তােমাকে দেখাবার জন্যে ডাকাডাকি করছিতুমি যে এখানে থাক না 

এটা আমার মনে নেই। 

আমার চিঠি পড়ে তােমার কি হাসি পাচ্ছে ? মনে হচ্ছে ডাক্তারের ভেতর কাৰ্য ভাব চলে এসেছে ?

কিছুটা যে আসে নি তানারােগ শােক ছাড়াও ইদানীং আমি আরাে অনেক কিছু নিয়ে ভাবিকিছু কিছু ভাবনা বেশ উদ্ভট... 

হঠাৎ একসঙ্গে ঝিঝি পােকা ডাকতে শুরু করল লােক বসতির বাইরে যেসব ঝিঝি ডাকে তাদের গলার জোর অনেক বেশিতারা একসঙ্গে ডাকতে শুরু করে, আবার হঠাৎ করে একসঙ্গে থেমে যায়একজন শুধু থামে নাসে ডেকে যেতেই থাকেসে সম্ভবত ঝিঝি পােকাদের লীডার। 

তেঁতুল বনে জোছনা-পর্ব-(৩) হুমায়ূন আহমেদ

আনিস উঠে দাঁড়ালরাত হয়ে গেছেকোয়ার্টারে ফেরা দরকার কৃষ্ণপক্ষ চলছেঅন্ধকারে সাইকেল চালানাে কষ্টকর ব্যাপাররাস্তাটা খানাখন্দে ভরাসাইকেল টেনে টেনে নিয়ে যেতে হবে। 

কাঠগােলাপের গাছে সাইকেল হেলান দিয়ে রাখা হয়েছিলসেখানেশতশত জোনাকি পােকা জ্বলছেসাইকেল নেইআনিসের বিস্ময়ের সীমা রইল না। কেউ একজন চুপিচুপি সাইকেল নিয়ে চলে গেছেসাইকেলটা তার শখের জিনিস ছিলপােষা কুকুরের ওপর যেমন মায়া পড়ে, সাইকেলের ওপরও সে রকম মায়া পড়ে গেছেআনিস খুবই অবাক হয়ে লক্ষ করলতার রাগ লাগছে নামন খারাপ লাগছেজোনাকি পােকাগুলাে ঝক বৈঁধে উড়ছেঅতি সুন্দর দৃশ্যএই দৃশ্যও মন টানছে নাআনিস হাঁটতে শুরু করলজোনাকি পােকাগুলাে পেছনে পেছনে আসছে

Leave a comment

Your email address will not be published.