• Tuesday , 22 September 2020

বহুব্রীহি পর্ব ( ৪)- হুমায়ূন আহমেদ

মেয়েটি অবাক হয়ে বলল, আমাকে বলছেন

মেয়েটির চোখে অপরিচিতের দৃষ্টিলজ্জায় এবং দুঃখে মনসুরের চোখে প্রায় পানি এসে গেলআর তখন মেয়েটি বলল, আচ্ছা আপনি গ্রীণ ফার্মেসীর ডাক্তার সাহেবজ্বি আমি ভালবহুব্রীহি

মনসুর হড়বড় করে বলল, আপনার মায়ের সেই কাটাটা কি সেরেছে

মেয়েটি এই প্রশ্নে কিছুক্ষণ স্থির দৃষ্টিতে তার দিকে তাকিয়ে হেসে ফেললতারপর আর কোন কথা না বলে রিকশায় উঠে গেলরাগে এবং লজ্জায় মনসুরের ইচ্ছা করল লাইট পােষ্টে নিজের মাথা সজোরে ঠুকে দেয়কেন সে বােকার মত তার মাহাত কাটার কথা জিজ্ঞেস করল? মেয়েটি নিশ্চয়ই তার বােকামী নিয়ে মনে মনে হাসছেকে জানে বাড়িতে গিয়ে তার মাকেও হয়ত বলবেকি লজ্জা! কি লজ্জা। 

কুন্দুস সাহেব বললেন, তােমার কি হয়েছে মনসুর বল তােকিছু হয়নিকিছু হয়নি বললে তাে আমি বিশ্বাস করব নাকিছু একটা হয়েছে তাে বটেইরাতে ঘুম 

হয়

ঘুমের একটু অসুবিধা হচ্ছে? বদ হজমও হচ্ছে তাই না? জ্বি। 

মনে হচ্ছে পৃথিবীটা খুব খারাপ জায়গঠিক না? জ্বি। 

সবই খুব পরিচিত লক্ষণআমি যখন ইন্টারমিডিয়েটে পড়ি তখন আমার মধ্যে এইসব লক্ষণ প্রকাশ পেয়েছিলএটা একটা জীবাণু ঘটিত অসুখ। 

মনসুর অবাক হয়ে বলল, জীবাণু ঘটিত অসুখ

হ্যাঁ জীবানূ ঘটিতএইসব জীবাণুর উৎপত্তি হয় কোন এক সুন্দরী তরুণীর চোখেজীবাণুর নাম হচ্ছে প্রেমজীবাণুইংরেজীতে বলে Love bus, ঠাট্টা করছি না ভাই, ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে বলছিজীবাণুর প্রথম আক্রমণে নার্ভাস সিস্টেম উইক হয়ে যায়তারপর লিভার ক্ষতিগ্রস্ত হয়। 

বহুব্রীহি পর্ব ( ৪)- হুমায়ূন আহমেদ

কি যে বলেনসত্যি কথা বলছি রে ভাইখুবই সত্যি কথাএখন বল মেয়েটা কে? কেউ নাসােবাহান সাহেবের মেয়ে মিলিনাতাে

মনসুরের চোখ মুখ লাল হয়ে গেলকুদ্স সাহেব বললেন, আগেই সন্দেহ হয়েছিল এখন তােমাকে দেখে পুরােপুরি নিশ্চিত হলামতােমার অবস্থাতাে দেখি কাহিল। 

মনসুর ক্ষীণ স্বরে বলল, আপনি যা ভাবছেন তা নাআমি কিছুই ভাবছি নাভাবাভাবির ফাঁক তুমি রাখনিএখন আমার উপদেশ শােন, সহজ পাচ্য খাবার খাবেবেশী করে ডাবের পানি খাবেসকাল বিকাল লাইট একসারসাইজপ্রেম জীবাণু ঘটিত অসুখের কোন চিকিৎসা নেইজীবাণুগুলি ভাইরাস টাইপ, কোন ওষুধেই কাজ করে নাসময়ে রােগ সারেটাইম ইজ দ্যা বেস্ট হিলারসতীনাথের বিরহের গানগুলি শুনতে পারএতেও অনেক সময় আরাম হয়যে আমি এধারে তুমি ওধারে, মাঝে নদী কুলকুল বয়ে যায় টাইপ গান। 

ঠাট্টা করবেন না কুদ্স ভাইঠাট্টা তামাশা ভাল লাগে না। 

ঠিক বলেছ, এই সময় ঠাট্টাটা অসহ্য লাগেকেউ ঠাট্টা করলে ইচ্ছা করে টান দিয়ে জিভ ছিড়ে ফেলিরােগের কঠিন সংক্রমনের সময় এটা হয়অল্পতেই নার্ভ ইরিটেটেড হয়। 

মনসুর ক্ষীণ স্বরে বলল, আমাকে কি করতে বলেন

কিছুই করতে বলি নামিলি অল্প বয়েসী মেয়ে হলে চিঠি লিখতে বলতামএরা সেই স্টেজ পার হয়ে এসেছেচিঠি লিখলে সবাইকে সেই চিঠি পড়ে শুনাবে এবং হাসাহাসি করবেতুমি যদি আগবাড়িয়ে কথা বলতে চাও, তােমাকে ভাববে ভ্যাবলাএক মনে আল্লাহকে ডাকা ছাড়া তাে আমি আর কোন পথ দেখি নাযাকে বলে আধ্যাত্মিক চেষ্টামাঝে মাঝে এই চেষ্টায় কাজ হয়দৈব সহায় হয়

বহুব্রীহি পর্ব ( ৪)- হুমায়ূন আহমেদ

হঠাৎ হয়ত দেখবে মেয়েটা রিকসা এ্যাকসিডেন্ট করেছেধরাধরি করে তাকে এইখানে আনা হলতুমি ফাষ্ট এইড দিলেদেখা গেল অবস্থা সুবিধার নাতুমিই তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলেমেয়েটাকে ব্লড দিতে হবেব্লাড গ্রুপ পজেটিভদেখা গেল তােমারও তাইতুমি ব্লড দিলেমেয়েটি করুণ গলায় বললে, আপনি আমার জন্যে অনেক করলেনআপনাকে ধন্যবাদতুমি গাঢ় গলায় বললে, ধন্যবাদ পরে হবে আগে সুস্থ হয়ে উঠ। 

মনসুর বলল, চুপ করুনতাে কুদুস সাহেব, আপনার কথা শুনতে ভাল লাগছে না। 

কুদ্স সাহেব বললেন, সেটা তােমার মুখ দেখেই বুঝতে পারছিকরব কি বল, কথা বলা হয়ে গেছে অভ্যাসতােমার অবস্থা দেখে খারাপও লাগছেআল্লাহর উপর ভরসা রাখতাতে যদি কিছু হয়। 

কিছু হল নাপ্রেমের ক্ষেত্রে দ্বৈব কখনােই সহায় হয় নাগল্পে, সিনেমায় হয়জীবনটা গল্প সিনেমা নয়জীবনের নায়িকারা, নায়কদের সঙ্গে রাস্তায় দেখা হলেও চিনতে পারে নাস্যাভলনের শিশি কিনতে একবারই ফার্মেসীতে আসে দ্বিতীয়বার আসে নাগল্পে উপন্যাসে নায়িকারা ঘন ঘন অসুখে পড়েডাক্তার নায়ক তখন চিকিৎসা করে তাকে সারিয়ে তুলেবাস্তবের নায়িকাদের কখনাে কোন অসুখ হয় না, আর হলেও অন্য ডাক্তাররা তার চিকিৎসা করেন

অবশ্যি মনসুরের বেলায় দ্বৈব সহায় হলশরৎকালের এক সন্ধ্যায় তার ডাক পড়ল নিরিবিলিতেসােবাহান সাহেবের প্রেসার মাপতে হবেতাঁর প্রেসার হাই হয়েছেমাথা ঘুরছেব্লাড প্রেসার নামক ব্যধিটির উপর কৃতজ্ঞতায় মনসুরের মন ভরে গেলবারান্দায় মিলি দাড়িয়েছিলএও এক অকল্পনীয় সৌভাগ্যবারান্দায় সে নাও থাকতে পারতমিলির সঙ্গে দেখা না হলেও কিছু করার ছিল নামিলির জন্যেতাে আর তাকে ডাকা হয়নিমিলি বলল, স্নামালিকুম। 

বহুব্রীহি পর্ব ( ৪)- হুমায়ূন আহমেদ

ওয়ালাইকুম সালাম। 

আপনার জন্যে দাঁড়িয়ে আছি। 

মনসুর হতভম্ববলে কি এই মেয়েএই কথাগুলি কি সত্যি সত্যি বলছে না মনসুর কল্পনা করছে? কল্পনা হাওয়াই সম্ভবনিশ্চয়ই কল্পনাহেলুসিনেশন। 

আপনাকে বলেছে বােধ হয় বাবার ব্লাড প্রেসার মাপার জন্যে আপনাকে খবর দেয়া হয়েছে। 

*জি বলেছেআপনার সঙ্গে একটা গােপন ষড়যন্ত্র করবার জন্যে আমি দাঁড়িয়ে আছিজ্বি বলুনআপনি যা বলবেন তাই হবে। 

যদি দেখেন বাবার প্রেসার খুব হাই না তবু বলবেন হাইবাবার রেষ্টের সরকারভয় না দেখালে তিনি রেষ্ট নেবেন নাআপনি মিথ্যা করে বলতে পারবেন না

জ্বি নামিলির দৃষ্টি তীব্র হলমনসুর বলল, আমি মিথ্যা বলতে পারি নামিথ্যা বলতে পারেননা

জ্বি নাআচ্ছা, আমার জানা ছিল নাআপনাকে দেখে আর দশটা সাধারণ মানুষের মতই মনে হয়েছিল, যারা প্রয়ােজনে কিছু মিথ্যা টিথ্যাও বলতে পারেআপনি যে অসাধারণ তা বুঝতে পারি নি। 

আপনি কি রাগ করলেন

কথায় কথায় রাগ করা আমার স্বভাব নাআসুন, দোতলায় যেতে হবেবাবা দোতলায়সিড়ি ভেঙ্গে দোতলায় ওঠার পর মনসুর নাভাস ভঙ্গিতে বলল, একটা ভুল হয়ে গেছে। 

বহুব্রীহি পর্ব ( ৪)- হুমায়ূন আহমেদ

কি ভুল? প্রেসার মাপার যন্ত্র ফেলে এসেছি‘ 

সেকি, প্রেসার মাপার জন্যেইতাে আপনাকে ডাকা হয়েছেসেই জিনিসই আপনি ফেলে এসেছেন? আপনি মানুষ হিসেবে শুধু যে অসাধারণ তাই না, মনে হচ্ছে খুব ভুলাে মন” 

আমি এক দৌড়ে নিয়ে আসবযাব আর আসবআপনাকে যেতে হবে নাআমি কাদেরকে পাঠাচ্ছি, নিয়ে আসবে‘ 

না না আমিই যাইএক মিনিটমনসুর অতি দ্রুত সিড়ি টপকাচ্ছেসেই দ্রুত সিড়ি ভাঙ্গা দেখে মিলির মনে হলএকটা একসিডেন্ট হতে যাচ্ছে, হবেই হবেনা হয়েই যায় নাআর তখনি হুড়মুড় শব্দ হল

Related Posts

Leave A Comment