রয়্যাল চ্যালেঞ্জার বেঙ্গালুরু জয় পেয়েছে ১০ উইকেটে

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার বেঙ্গালুরু এবং কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব দুটি দলই এবারের আসরের খুব শক্তিশালী।তাই দুই দলের খেলা মাঠে গড়ালে আলাদা একটা টান টান উত্তেজনা ছড়াবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু সোমবার (১৪ মে) কি হলো? গেইল-রাহুলরা যেন কোহলি কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করল! কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে ১০ উইকেটে হারিয়েছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। তাও আবার ৭১ বল হাতে রেখে!

লোকেশ রাহুল, ক্রিস গেইল ও অ্যারন ফিঞ্চকে নিয়ে গড়া ব্যাটিং লাইনআপ। করুন নায়ার ও মার্কাস স্টয়নিসের মতো আরও দুজন আছেন দলে। সেই পাঞ্জাব দল ১৫ ওভার ১ বল খেলেই অলআউট। ১০ রানে শেষ উইকেট হারিয়ে ৮৮ রান তুলেই শেষ হয়েছে পাঞ্জাব। পাঁচ থেকে এগারোর ব্যাটসম্যানরা তো টেলিফোন নম্বর লিখলেন-২২৯০০৩১!

২৩ বলে ২৬ রান তোলা ফিঞ্চই দলের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। ৩ ছক্কায় রাহুলের ২১ আর গেইলের ১৮ রানে উদ্বোধনী জুটিতে ৩৬ রান এসেছিল। বাকি ৫২ রান তুলতেই ১০ উইকেট খুইয়েছে টুর্নামেন্টে উড়ন্ত সূচনা করা দলটি। ২৩ রানে ৩ উইকেট পেয়েছেন উমেশ যাদব। তিন ব্যাটসম্যান হয়েছেন রানআউট।

৮৯ রান তাড়া করতে নেমে নিজেই ওপেনিংয়ে উঠে এসেছেন কোহলি। ২৮ বলে ৬ চার ও ২ ছক্কায় ৪৮ রান করে দলকে জিতিয়েই ফিরেছেন। অন্যপ্রান্তে পার্থিব প্যাটেলও অধিনায়ককে অনুসরণ করেছেন। ২২ বলে ৪০ রান তোলার পথে ৭টি চার মেরেছেন পার্থিব প্যাটেল।

৭১ বলের বিশাল জয়ে রান রেটটা একটু ভালো হলেও এখনো পয়েন্ট টেবিলের সাতে বেঙ্গালুরু। প্লে অফ খেলতে চাইলে পরের দুই ম্যাচেও তাই জিততে হবে কোহলিদের।

ফলে কোহলির এমন চমকে পয়েন্ট টেবিলে হয়েছে উলট-পালট। বেঙ্গালুরুর প্লে-অফে খেলার আশা এখনো বাঁচিয়ে রেখেছে গতকালকের এই জয়ের মাধ্যমে। সমান ১২ ম্যাচ খেলে কলকাতা, রাজস্থান ও পাঞ্জাবের পয়েন্ট সমান ১২ করে। এরপর ১২ ম্যাচ খেলে ৬ ও ৭ নম্বরে যথাক্রমে মুম্বাই ও রাজস্থান। আর ৬ পয়েন্ট নিয়ে সবার শেষে দিল্লি। ফলে দিল্লি ছাড়া সবার প্লে-অফে খেলার সম্ভাবনা অনেকটাই বেঁচে আছে।

Leave a comment

Your email address will not be published.