৯ উইকেটের বিশাল জয় পায় হায়দরাবাদ।

আইপিএল সিজন ইলেভেনের দর্শকরা সবচেয়ে বিধ্বংসী ইনিংসটি দেখেছে বৃহস্পতিবার দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলায়। হায়দরাবাদের বিপক্ষে ৬৩ বলে ৭ ছয় ও ১৫ চারে ১২৮ রান করেন ভারতের ডি ভিলিয়ার্স খ্যাত দিল্লির তরুণ ঋসভ পান্ত। মাত্র ৪৩ রানে ৩ উইকেট হারানো দিল্লিকে চ্যালেঞ্জিং স্কোর এনে দেন পান্ত। তার ব্যাটে ভর করে দলটি ১৮৭ রান স্কোর বোর্ডে জমা করে।

কিন্তু বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই বিপদে পরে হায়দরাবাদ। দলীয় ১৫ রানের মাথায় ১৪ রান করে ফিরেন অ্যালেক্স হেলস। শুরুর  ধাক্ক ভালো ভাবেই সামলে উঠেন ধাওয়ান-উইলিয়ামসন। প্রথমে কিছুটা ধীর গতিতে শুরু করলেও উইকেটে থিতু হওয়ার সাথে সাথে স্ট্রোক বাড়তে থাকেন ধাওয়ান-উইলিয়ামসন। তাদের দু‘জনে অবিচ্ছিন্ন জুটিতে ভর করে ৭ বল হাতে রেখে ৯ উইকেটের বিশাল জয় পায় হায়দরাবাদ।

ধাওয়ান ৫০ বলে ৯ চার ৪ ছক্কায় ৯২ রান করে। উইলিয়ামসন ৫৩ বলে ৮ চার ও ২ ছক্কায় ৮৩ রান তুলে। ম্যাচ সেরার পুরষ্কার পায় ওপেনার শিখর ধাওয়ান। টস জিতে ব্যাটিংয়ে নামা দিল্লি শিবিরে প্রথম আঘাত হানেন সাকিব আল হাসান। ম্যাচের ৪র্থ ওভারের শেষ দুই বলে নেন দিল্লির দুই ওপেনার পৃথ্বী শ ও জেসন রয়ের উইকেট। হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা জাগিয়েও শেষ পর্যন্ত কাঙ্খিত রেকর্ডের দেখা পায়নি সাকিব।

ম্যাচটিতে ৪ ওভার বোলিং করে মাত্র ২৭ রান খরচায় ২ উইকেট নেয় সাকিব। হায়দরাবাদের সবচেয়ে ইকোনমিক বোলার ছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

এই জয়ের ফলে পয়েন্ট টেবিলে চেন্নাইয়ের সাথে ব্যবধানে বাড়িয়ে শীর্ষ স্থান মজবুত করলো হায়দরাবাদ।

Leave a comment

Your email address will not be published.