দুই দুয়ারী-পর্ব-(১১)-হুমায়ুন আহমেদ

লােকটি নীচু গলায় বলল, বিড়াল মিউ মিউ করে যে কথাগুলি বলে তা যদি মানুষ বুঝতাে তাহলে তাকে কোনদিন ফেলে দিয়ে আসতাে নাদুই দুয়ারীবিড়াল কি বলে

বিড়াল কাঁদতে কাঁদতে বলে, তুমি আমাকে অনেক দূরে ফেলে দিয়ে এসেছিলেআশ্রয় এবং খাদ্যের সন্ধানে আমি অন্য কোথাও যেতে পারতামতা যাইনিতােমার কাছেই ফিরে এসেছিঅনেক কষ্টে ফিরেছিকেন জান? তােমার প্রতি ভালবাসার জন্যেএই ভালবাসা পশুর ভালবাসা হলেও ভালবাসাএর অমর্যাদা করাে নাতুমি আমাকে গ্রহণ কর। 

আপনাকে এসব কে বলেছে? কেউ বলেনিআমি অনুমান করেছি। 

ভাই এই দেখেন আমার চোখে পানি এসে গেছেআমি আবার হাইলি ইমােশনাল লােকঅল্পতেই আমার চোখে পানি এসে যায়টিভির বাংলা সিনেমা যতবার দেখি ততবার কাঁদিসবাই হাসাহাসি করেসিনেমা দেখা ছেড়ে দিলাম এই কারণে। 

মানুষ হয়ে জন্মানাের অনেক যন্ত্রণা। 

কারেক্ট কথা বলেছেন ভাইএর চেয়ে গাছ হয়ে জন্মানাে ভাল ছিলমাঝে মাঝে গাছ হয়ে যেতে ইচ্ছা করেহাসবেন না ভাই সত্যি বলছি” 

গছি হওয়া তাে খুব সহজখুব সহজ? কি বলছেন আপনি?” 

‘া খুব সহজগভীর বনের মাঝামাঝি একটা ফাঁকা জায়গায় দুহাত উপরে তুলে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়গায়ে কোন কাপড় থাকবে নামাথায় রােদ পড়বে, বৃষ্টি পড়বে, রাতে চাঁদের আলাে পড়বেআস্তে আস্তে শরীরটা গাছের মত হয়ে যেতে থাকবেপ্রথম দিকে ক্ষুধাতৃষ্ণা হবেআস্তে আস্তে কমে যাবেরােদে পুড়ে গায়ের চামড়া শক্ত হতে থাকবেপায়ের তলা দিয়ে শিকড় বেরুবে। 

সত্যি বলছেন নাকি ভাই? হ্যা সত্যি কতদিন লাগে? কারাে জন্যে খুব অল্পদিন লাগেআবার কারাে জন্যে দীর্ঘ সময় লাগেআমার কতদিন লাগবে বলে মনে হয় ? বুঝতে পারছি না। আপনার ইচ্ছাশক্তির উপর নির্ভর করছেট্রাই করে দেখতে ইচ্ছা হচ্ছে। 

দেখুন না। 

পুরােপুরি নগ্ন না হয়ে যদি একটা আণ্ডার ওয়্যার থাকে তাতে অসুবিধা 

নাতবে পুরােপুরি নগ্ন হতেই অসুবিধা কি? কেউ তাে দেখছে না। 

‘সেটাও সত্যিআচ্ছা ভাই আপনি অনেস্টলি বলুন তাে আমি কি দেখব চেষ্টা করে?| দেখুনঅন্তত একদিন এবং একরাত দেখুন। যদি দেখছেন পারছেন না, বাসায় চলে আসবেন। 

মন্টুর ঘন ঘন নিঃশ্বাস পড়তে লাগলসে নিজের ভেতর অন্য এক ধরনের উত্তেজনা অনুভব করছেসে গাঢ় স্বরে বলল, ব্রাদার একটা কথা। 

. বলুন। 

আপনি এক কাজ করুনগাড়ি নিয়ে চলে যানআমি ড্রাইভারকে বলে দিচ্ছিআমার কথা জিজ্ঞেস করলে বলবেন আমি থেকে গেছিকি জন্যে সেটা বলবেন নাওরা হাসাহাসি করতে পারে” 

জি আচ্ছা বলব নালােকটা বাসায় ফিরল বিকেল পাঁচটায়। 

সে সরাসরি বাসায় আসেনিগাড়ি নিয়ে সারা শহর ঘুরেছেড্রাইভার বিরক্ত হলেও কিছু বলে নি। 

মতিন সাহেব বারান্দায় বসে চা খাচ্ছিলেন তিনি লােকটাকে গাড়ি থেকে নামতে দেখে বিস্মিত হলেনলােকটি বলল, ফিরতে খানিকটা দেরী করলামগাড়ি নিয়ে খুব ঘুরেছিআশাকরি কিছু মনে করবেন না। 

মন্টু? মন্টু কোথায়? উনি মৌচাকে থেকে গেলেনআমাকে পাঠিয়ে দিলেন| মতিন সাহেব কি বলবেন ভেবে পেলেন নালােকটি গুন গুন করতে করতে নিজের ঘরের দিকে এগুচ্ছে – 

সকাতরে কাদিছে সকলে শােন শােন পিতা 

কহ কানে কানে শােনাও প্রাণে প্রাণে মঙ্গল বারতাসুরমাকে নিয়ে আজ চোখের ডাক্তারের কাছে যাওয়ার কথামতিন সাহেব  কোন উৎসাহ বােধ করছেন নাতার ভেতর এক ধরনের অস্বস্তি বােধ হচ্ছেতার মন বলছে লােকটিকে তাড়িয়ে দিতে হবেঅতি দ্রুত তাড়িয়ে দিতে হবে। 

দুটি খাট পাশাপাশিহরিপ্রসন্ন বাবু এক খাটে – অন্য খাটে মিস্টার আগস্টরাত প্রায় দশটা বাজেকাজের মেয়ে ঘরেই রাতের খাবার দিয়ে গিয়েছিলখাওয়া শেষ হয়েছেহরিবাবু কিছুই প্রায় খেতে পারেননিসন্ধ্যা থেকেই তাঁর শ্বাসকষ্ট হচ্ছেএখন বেশ বেড়েছেতার মনে হচ্ছে নিঃশ্বাস ঠিকইনিতে পারছেন ফেলতে পারছেন নাফুসফুসে বাতাস ক্রমেই জমা হচ্ছে। 

মিস্টার আগস্ট বলল, ভাই আপনার শরীরটা কি খারাপ

হরিবাবু হঁসূচক মাথা নাড়লেননিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছে?” 

লুডু খেলবেন? মিতুর লুডু সেটটা আমার কাছে আছেহরিবাবু বিস্মিত হয়ে বললেন, লুডু

‘া লুডুসাপ লুডুএই খেলায় এক ধরনের উত্তেজনা আছেউত্তেজনার কারণে শারিরীক কষ্ট অনেকটা কমে যাবেখেলবেন?” 

খেলে দেখুন নাভাল না লাগলে বন্ধ করে দেবেন। 

হরিবাবু অবাক হয়ে দেখলেন লােকটা লুডু বাের্ড মেলে ধরেছেপাগল নাকি লােকটা? তিনি শুনেছেন লােকটা গাড়ির ধাক্কা খেয়ে রাস্তায় পড়ে ছিল। 

স্মৃতিশক্তি নষ্ট হয়ে গেছেমাথাও যে খারাপ হয়ে গেছে সে কথা তাকে কেউ বলে নি। 

তাই খেলবেন? নিন আপনি প্রথম দান দিনসাপ লুডুর নিয়ম জানেন তাে এক না উঠলে ঘুটি ঘর থেকে বেরুবে না। 

Leave a comment

Your email address will not be published.