দেবী উপন্যাস -পর্ব-(১৫)-হুমায়ুন আহমেদ

ভদ্রলােক আমার সম্পর্কে খোঁজখবর করার জন্যে মধুপুর গিয়েছিলেন, কী খোজ পেলেন জানতে ইচ্ছা করছে। 

মধুপুরের খবর পেলে কীভাবে? স্বপ্নে?না, স্বপ্নটপ্ল নাঅনুফা চিঠি দিয়েছেকবে চিঠি পেয়েছ?গতকাল। 

আনিস চুপ করে গেলরানু তার নিজের চিঠিপত্রের কথা আনিসকে কখনাে 

বলে নাবিয়ের পর রানু তার আত্মীয়স্বজনের যত চিঠিপত্র পেয়েছে তার কোনােটি সে আনিসকে পড়তে দেয় নিনিয়ে আনিসের গােপন ক্ষোভ আছে । 

কি, আমাকে নিয়ে যাবে? আমি আগে গিয়ে দেখি দ্রলােকের অবস্থা কেমন। 

মিসির আলিকে পাওয়া গেল নাবাড়িতে তার এক ছােট ভাই ছিল, সে বলল, ভাইয়াকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছেঅবস্থা বেশি ভালাে নাবিলরুবিন নাইন পয়েন্ট ফাইভলিভার খুবই ড্যামেজড় । 

মিসির আলি হাসপাতালে এসেছেন একগাদা বই নিয়েতার ধারণা ছিল বই পড়ে সময়টা খুব খারাপ কাটবে না, কিন্তু কার্যক্ষেত্রে সে রকম হয় নিডাক্তাররা বই পড়তে নিষেধ করেন নি, কিন্তু দেখা গেল বই পড়া যাচ্ছে নাকিছুক্ষণ তাকিয়ে থাকলেই মাথার ভেতর ভোতা এক ধরনের যন্ত্রণা হয়যন্ত্রণা নিয়ে বই পড়ার কোনাে মানে হয় নাতবু তিনি মৃত্যুবিষয়ক একটি বই পড়ে ফেললেন এবং মৃত্যু ব্যাপারটিতে যথেষ্ট উৎসাহ বােধ করতে লাগলেনতার স্বভাবই হচ্ছে কোনাে বিষয় একবার মনে ধরে গেলে সে বিষয় সম্পর্কে চূড়ান্ত পড়াশােনা করতে চেষ্টা করেন। 

মৃত্যু সাবজেক্টটি তার পছন্দ হয়েছে, কিন্তু বিষয়ে পড়াশোনা করতে পারছেন নাবইপত্র নেইইউনিভার্সিটি লাইব্রেরিতে কিছু থাকার কথা, কিন্তু আনাবেন কাকে দিয়ে? তাকে কেউ দেখতে আসছে নাতিনি এমন কোনাে জনপ্রিয় ব্যক্তি নন যে তার অসুস্থতার খবরে মানুষের ঢল নামবেতা ছাড়া অসুখের খবর তিনি কাউকে জানান নিহাসপাতালে ভর্তি হবার ইচ্ছাও ছিল না, কিন্তু ঘরে দেখাশােনার লােক নেইকাজের মেয়েটি তিনি মধুপুর থাকাকালীন বেশ কিছু জিনিসপত্র নিয়ে ভেগে গেছেএমন অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ছাড়া উপায় কী

বিকালবেলা তার কাছে কেউ আসে নাসবারই আত্মীয়স্বজন আসে দেখতে, তার কাছে কেউ আসে নাএই সময়টা তিনি চোখ বন্ধ করে শুয়ে থাকেন এবং এখনাে মানুষের সঙ্গ পাবার জন্যে তার মন কাঁদে দেখে নিজের কাছেই লজ্জিত বােধ করেন। 

আজ সারা দিন মিসির আলির খুব খারাপ কেটেছেতাঁর রুমমেট ছাব্বিশ বছরের ছেলেটি সকাল নটায় বিনা নােটিসে মারা গেছেমৃত্যু যে এত দ্রুত 

মানুষকে ছুঁয়ে দিতে পারে তা তার ধারণাতেও ছিল নাছেলেটা ভােরবেলায় নাশতা চেয়েছে, তার সঙ্গে খানিকক্ষণ কথাবার্তাও বলেছেতিনি জিজ্ঞেস করেছেন, আজ কেমন আছ

আজ বেশ ভালােলিভার ব্যথা করছে না?নাহ্, তবে তলপেটের দিকে একটা চাপা ব্যথা আছেখুব বেশি? না, খুব বেশি নাআপনি এটা কী বই পড়ছেন?” 

এটা একটা সায়েন্স ফিকশনফ্রাইডে দি থার্টিন্থবেশ ভালাে বইতুমি পড়বে

জ্বিনাইংরেজি বই আমার ভালাে লাগে নাবাংলা উপন্যাস পড়ি।। 

কার লেখা ভালাে লাগে? দেশেরমানে বাংলায়, কার লেখা তােমার পছন্দ

‘নিমাই ভট্টাচার্য। 

তাই নাকি?ছেলেটি আর জবাব না দিয়ে কারাতে থাকে। সকাল সাড়ে আটটায় বলল, এক জন ডাক্তার পাওয়া যায় কি না দেখবেন?তিনি অনেকক্ষণ বােম টিপলেন, কেউ এল নাশেষ পর্যন্ত নিজেই গেলেন ডিউটি রুমেফিরে এসে দেখেন ছেলেটি মরে পড়ে আছে। 

মৃত্যুর সময় পাশে কেউ থাকবে না, এর চেয়ে ভয়াবহ বােধহয় আর কিছু নেইশেষ বিদায় নেবার সময় অন্তত কোনােএকজন মানুষকে বলে যাওয়া দরকারনিঃসঙ্গ ঘর থেকে একা-একা চলে যাওয়া যায় নাযাওয়া উচিত নয়এটা হৃদয়হীন ব্যাপার। 

এত দিন যে ছেলেটি ছিল, এখন আর সে নেইঘণ্টাখানেকের মধ্যেই তার সমস্ত চিহ্ন ঘর থেকে সরিয়ে ফেলা হয়েছেবিছানায় নতুন বালিশ চাদরদিয়ে গেছে হয়তাে সন্ধ্যার মধ্যে কোনাে নতুন পেশেন্ট এসে পড়বে। 

মিসির আলি সমস্ত দিন কিছু খেতে পারলেন নাবিকেলের দিকে তার গায়ে বেশ টেম্পারেচার হলােপ্রথম বারের মতাে মনে হলাে একজনকেউ তাঁকে দেখতে এলে খারাপ লাগবে নাভালােই লাগবেকেউ না এলে এক জন রােগী হলেও আসুক, একাএকা এই কেবিনে রাত কাটানাে যাবে না। ঠিক এই সময়ইতস্তত ভঙ্গিতে রানু এসে ঢুকল। 

আপনি ভালাে আছেন?” 

না, ভালাে নাতুমি কোথেকে? বাসা থেকেইস! আপনার কী অবস্থা!অবস্থা খারাপ ঠিকইআনিস সাহেব কোথায়? আসে নি, আমি একাই এলাম ওর কাছ থেকে ঠিকানা নিয়েছিবস তুমিঐ চেয়ারটায় বসফ্লাস্কে চা আছেখেতে চাইলে খেতে পারউঁহু, চাটা খাব নাআপনার কাছে একটা খবর জানতে এসেছিকোন খবরটি

মধুপুরে গিয়ে আপনি কী জানলেন?তেমন কিছু জানতে পারি নি। 

তবু যা জেনেছেন তাবলুনআমার খুব জানতে ইচ্ছা করছেঅনুফালিখেছে, আপনি নাকি হাজারহাজার মানুষকে নানা রকম প্রশ্ন করেছেন। 

মিসির আলি হাসলেনহাসলে হবে না, আমাকে বলতে হবে‘ 

প্রথম যে জিনিসটি জানলামসেটি হচ্ছে, তুমি অনেকগুলাে ভুল তথ্য দিয়েছ।‘ 

আমি কোনাে তথ্য দিই নি। 

তুমি নিজে হয়তাে জান না সেগুলাে ভুলযেমন পায়জামা খােলার ব্যাপারটিরকম কোনাে কিছু ঘটে নি। 

রানু চোখ লাল করে বলল, ঘটেছে‘ 

না রানু, ঘটে নিএটা তােমার কল্পনাতা ছাড়া তুমি উলঙ্গ একটি ডেড বডির কথা বলেছসেটাও ঠিক না। 

কিন্তু আমি জানি, এগুলাে ঠিক‘ 

না রানুএইসব তুমি নিজে ভেবেছ এবং আমার ধারণা জাতীয় স্বপ্ন তুমি মাঝেমাঝে দেখদেখ না?” 

কী রকম স্বপ্নের কথা বলছেন? মিসির আলি কয়েক মুহূর্ত ইতস্তত করলেনস্পষ্ট গলায় বললেন, তুমি প্রায়ই স্বপ্ন দেখ নাএক জন নগ্ন মানুষ তােমার কাপড় খােলার চেষ্টা করছে

রানু উত্তর দিল নামাথা নিচু করে থাকলবল রানুজবাব দাও‘ 

হা, দেখিকখনাে কি ভেবে দেখেছ রকম স্বপ্ন কেন দেখ

ভাবি নি। 

আমি ভেবেছি এবং কারণটাও খুঁজে বের করেছিআজ সেটা বলতে চাই , অন্য এক দিন বলব‘ 

না, আপনি আমাকে আজই বলেন। 

মিসির আলি ফ্লাস্ক থেকে চা ঢাললেনশান্ত স্বরে বললেন, চা খেতেখেতে শােনচায়ে ক্যাফিন আছে

Leave a comment

Your email address will not be published.