বিতর্ক অজি-প্রোটিয়াদের দ্বিতীয় টেস্টে

দক্ষিণ আফ্রিকা বনাম অস্ট্রেলিয়া চলতি টেস্ট সিরিজ ‘বিতর্ক সিরিজ’ নামে পরিচিতি পেতে চলেছে। প্রথম টেস্টে ওয়ার্নার-ডি কক-রাবাদা বির্তকের পর দ্বিতীয় টেস্টে মিউজিক্যাল ব্যান্ড নিয়ে বির্তকের শুরু হল।

সেন্ট জর্জ পার্কের ক্রিকেট গ্রাউন্ডটির সঙ্গে অনেক বছর ধরে জড়িয়ে রয়েছে ওখানের একটি জনপ্রিয় মিউজিক্যাল ব্যান্ড ‘দ্য ব্রাস’। প্রোটিয়া বনাম কিউই দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিনে অন্য সব দিনের মতই গ্যালারিতে উপস্থিত থেকে নিজের দলকে সমর্থন। জানানোর সঙ্গেই গ্যালারিতে উপস্থিত দর্শকদের মনোরঞ্জন করছিল ব্যান্ডটি৷ হঠাৎই খেলা থামিয়ে ব্যান্ডটিকে মিউজিক থামাতে বলেন দুই রেফারি ধর্মসেনা ও সুন্দরম রবি।

কারণ হিসেবে তারা জানান ‘দ্য ব্রাসের’ উচ্চস্বরের মিউজিকের জন্য ব্যাটসম্যানদের ব্যাট ও প্যাডে বল লাগার আওয়াজ শুনতে পাচ্ছেননা তারা। এরকম অবস্থায় সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারা মুশকিল। এখন যদি ব্যান্ড কর্তৃপক্ষ তাদের মিউজিক না থামান তাহলে তারা আর ম্যাচ পরিচালনা করবেন না।

কিন্তু আম্পায়রদের কথা কানে না তুলে আরো জোরে মিউজিক শুরু করেন ব্যান্ড কর্তৃপক্ষ৷ উপস্থিত দর্শকরাও‘ উই ওয়ান্ট ব্যান্ড’ ধ্বনি দিতে থাকেন। দু’বার খেলা থামিয়ে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করেন ধর্মসেনা ও সুন্দরম। শেষ পর্যন্ত ম্যাচ রেফারি জেপ ক্রো নেমে এসে পরিস্থিতির সামাল দেন। তবে ব্যান্ডটি পুরো ম্যাচ জুড়ে আরও জোরে মিউজিক চালিয়ে যায়।

পুরো ঘটনায় বিরক্তি প্রকাশ করে টুইট করেছেন প্রাক্তন প্রোটিয়ান উইকেট কিপার মার্ক বাউচার। টুইটে ইডেনের ক্রাউড ও শোরগোলের কথা উল্লেখ করে তিনি লেখেন, ‘পরেরবার গ্রেট ইডেন গার্ডেন্সে ১ লক্ষ দর্শক চিৎকার করবে (যেটা সেন্ট জর্জের থেকে আরো বেশি করে কানে তালা লাগাবে), দয়া করে অফিসিয়ালি পুরো খেলাটাকে বন্ধ করে দাও। হাস্যকর! ওয়েক আপ ধর্মসেনা। তুমি খেলেছো তুমি ভালোই জানো সবটা।’

Leave a comment

Your email address will not be published.